প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মোদী-অমিত শাহের বিরুদ্ধে নির্বাচনি বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে সুপ্রিমকোর্টে কংগ্রেস

লিহান লিমা: নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করলেও নির্বাচন কমিশন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না। ইতোমধ্যেই সুপ্রিমকোর্টে দায়ের করা পিটিশনে কংগ্রেস সাংসদ সুস্মিতা দেব অভিযোগ করেছেন, মোদী এবং অমিত শাহের নির্বাচন বিধি লঙ্ঘনের একাধিক অভিযোগ দায়ের হওয়া সত্ত্বেও নির্বাচনী প্যানেল উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়নি। হিন্দুস্তান টাইমস, এনডিটিভি

কংগ্রেসের আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ জানিয়েছেন, মঙ্গলবার এই মামলার শুনানি হবে। সুস্মিতা দেবের অভিযোগ, ‘প্রধানমন্ত্রী মোদী এবং বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ সভাগুলিতে ঘৃণামূলক বক্তৃতা ও হিংসা উদ্রেককারী ভাষণ দিচ্ছেন। ভোটারদের মধ্যে বিভাজন করতে তা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন।’ কংগ্রেস বলছে, প্রধানমন্ত্রী মোদী গুজরাতেই আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন ২৩ এপ্রিল নিজের ভোট দেওয়ার পর। নিজের বক্তব্য রাখা ছাড়াও সেখানে তিনি রোড শো-র মতো অনুষ্ঠান করেন বলে অভিযোগ করেছে কংগ্রেস।

কংগ্রেসের অভিযোগ, সেনাবাহিনী নিয়ে কোন মন্তব্য করার বিষয়ে কমিশনের কড়া নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও বিজেপির বিভিন্ন সভায় মোদী ও অমিত শাহ সেনাবাহিনী নিয়ে মন্তব্য করে যাচ্ছেন। গুজরাটে ১৭ এপ্রিলের ভোট প্রচারে গিয়ে মোদী পুলওয়ামা হামলা নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন। রোববার বিহারের সীতামারিতে গিয়ে অমিত শাহ বলেছেন, মোদী সরকার দেশের সীমান্ত সুরক্ষিত করেছে। দেশের নিরাপত্তাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

কংর্রেসের মুখপাত্র অভিষেক সিঙ্ঘভি বলেন, বিগত ৫/৬ সপ্তাহে বিজেপি ৩৭টি ভাষণ দিয়েছে, যার মধ্যে অন্ততপক্ষে দশটি ভাষণ ঘৃণা উদ্রেককারী, উস্কানিমূলক, অথবা বিভাজন নীতির ওপর ভিত্তি করা ভাষণ। প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমও অভিযোগ এনেছেন, নির্বাচন কমিশনের বিজেপির প্রতি পক্ষপাত রয়েছে। বিজেপির নির্বাচন বিধি লঙ্ঘন নিয়ে কমিশনের পদক্ষেপ গ্রহণে রীতিমতো অনীহা রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত