প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনা করেই দল পরিচালনা করছেন তারেক রহমান

শাহানুজ্জামান টিটু : অনলাইন পোর্টালসহ কিছু কিছু গণমাধ্যমে ‘বিএনপি চলবে তারেকের একক সিদ্ধান্তে’ শীর্ষক সংবাদ পরিবেশন করা হচ্ছে-যা সম্পূর্ণরুপে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। বিএনপি একটি বৃহৎ গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল। দলের কার্যক্রম পরিচালনায় গণতান্ত্রিক নীতিকেই অনুসরণ করা হয়। সংশ্লিষ্ট কমিটির নেতৃবৃন্দের মতামতের ভিত্তিতেই দলের যেকোন কর্মসূচি প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করা হয়। এ মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রহুল কবির রিজভী।

সোমবার বিকেলে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, গতকাল দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বিদ্যমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, সাংগঠনিক কার্যক্রমসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হয়। কিন্তু সেখানে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের একক সিদ্ধান্তে দল চলবে এধরণের কোন আলোচনা হয়নি।

রিজভী বলেন, দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে দল পরিচালনায় একক সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে বলে আজ কিছু গণমাধ্যমে যে সংবাদ পরিবেশিত হয়েছে তা শুধু সত্যের অপলাপই নয়, ক্ষমতাসীনদের মদদে এটি জনমনে বিভ্রান্তি তৈরীর আরেকটি নতুন কৌশল। আমি দলের পক্ষ থেকে এধরণের কাল্পনিক, অসত্য, বানোয়াট সংবাদ পরিবেশনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

বিএনপির এমপিদের শপথ নেয়ার ক্ষেত্রে সরকারের কোনো চাপ নেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, তার এই বক্তব্যের পর জনগণ নিশ্চত হয়েছে যে, ধানের শীষের প্রাার্থীদের চাপ দেয়া হচ্ছে শপথ নিতে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে নির্বাচিত সংসদ সদস্য উকিল আবদুস সাত্তার ভূঁইয়া গত পরশু তার এলাকায় স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সাথে মতিবিনময় সভা ঘোষণা দেন, ’দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে শপথ নিবেন না। তারপরে সরকারের একটি সংস্থার কয়েক ব্যক্তি উকিল আবদুস সাত্তারকে সেই সভা থেকে নিরিবিলি কথা বলার জন্য নিয়ে যেতে চাইলে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন।

সভায় উপস্থিত নেতাকর্মীরা আমাদের জানিয়েছেন, সেখান থেকে উকিল আবদুস সাত্তার সাহেবকে জোর করে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু আমাদের নেতা-কর্মীদের প্রতিরোধের মুখে তারা সফল হয়নি। কেবল উকিল আবদুস সাত্তারই নন, অন্য এমপিদেরও চাপ দেয়া হচ্ছে শপথ নিতে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত