প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বকাপে টাইগারদের ফটোসেশনে নেই সাকিব, ক্ষেপেছেন পাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক : মিরপুরের হোম অফ ক্রিকেটে বিশ্বকাপের আগে জাতীয় দলের ফটোসেশনে অনুপস্থিত ছিলেন ওয়ানডে দলের সহ-অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। বিশ্বকাপ স্কোয়াডের বাকি ১৪ সদস্য ফটোসেশনে অংশ নিয়েছিলেন এই বিশেষ ফটোসেশনে। সাকিবের অনুপস্থিতির বিষয়টি পুরো দলের জন্য দুঃখজনক বলে আখ্যায়িত করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। খবরটি জানিয়েছে ক্রিকফ্রেঞ্জি।

আইপিএল মিশন শেষে রবিবার বিকেল পাঁচটায় দেশে ফিরেছেন সাকিব। সোমবার জাতীয় দলের অনুশীলনে দেখা যায় নি তাঁকে। তবে দুপুরবেলা বিসিবিতে এসেছিলেন তিনি। বিসিবি পরিচালাকদের মধ্যাহ্ন ভোজে যোগ দেয়ার কথা ছিল ক্রিকেটারদের। সেখানে যোগ না দিয়েই চলে গিয়েছেন সাকিব। মধ্যাহ্ন ভোজের পর টিম ফটোসেশনেও দেখা যায়নি তাঁকে।

‘দুঃখজনক। আর কি বলব। এটা দুঃখজনক যেহেতু টিম ফটোসেশন ছিল,’ ফটোসেশন শেষে সাংবাদিক প্রশ্নের জবাবে বলেছেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান।

‘আমি এসে জিজ্ঞেস করেছি এখানে পৌঁছে। তখন আমি ফোন করেছিলাম সাকিবকে। জিজ্ঞেস করেছিলাম, কোথায় তুমি। ও যে এসেছে আমি জানিও না। পেপারে পড়ে দেখেছি। ও বলল, আপনার বাসায় আসব রাতে। বললাম এখনই ফিরে আস। ও বললো, আমি তো বের হয়ে গিয়েছি। আমি এসে জিজ্ঞেস করলাম, ওরা বললো, ওকে আগেই বলা হয়েছে যে আজ ফটোসেশন আছে দলের। জাতীয় দল যাচ্ছে বিশ্বকাপে, ফটোসেশন আছে দলের। যেহেতু দলের প্র্যাকটিসে ছিল না। আমরা আশা করেছিলাম এখানে আসবে। কিন্তু সে নেই।’

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের ফটো সেশন। যেখানে নেই বাংলাদেশ দলের সহ-অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

গত ২২ এপ্রিল থেকে বাংলাদেশ দলের জন্য আয়ারল্যান্ড সিরিজ ও বিশ্বকাপকে সামনে রেখে বিশেষ অনুশীলন ক্যাম্প আয়োজন করা হয়েছে। ২২ তারিখ থেকেই সাকিবকে ক্যাম্পে যোগ দেয়ার জন্য চিঠি পাঠিয়েছিল বিসিবি। তবে আইপিএলে খেলার সুযোগ সৃষ্টি হওয়ায় ভারতে থেকে যান তিনি। অনুশীলনে না থাকা অবশ্য সাকিবের জন্য নতুন কিছু নয়। দলের বাকি সদস্যরাও ইতিমধ্যে সাকিবকে ছাড়া অনুশীলন করতে অভ্যস্ত হয়ে গেছে, বলেছেন পাপন,

‘আমার মনে হয় দলের অন্যান্যরা এতদিনে অভ্যস্ত হয়ে গেছে। যাই হোক। এছাড়া আর কি বলব। আমি মনে করি এটা ওর জন্যই দুর্ভাগ্য। ও যে আমাদের এই দলের সাথে বিশ্বকাপে যাচ্ছে, এটার সাথে ও থাকতে পারল না, সেটা আমি মনে করি ওরই কপাল খারাপ। আর কি বলব।’

এই ইস্যুতে বিসিবি কঠোর হতে চাইলেও সময়ের কারণে পারছে না। মে মাসের ১ তারিখ বাংলাদেশ দল আয়ারল্যান্ডের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়বে। এই সময় জাতীয় দলের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে চায় না বিসিবি। বোর্ড প্রধান তাই বলেছেন,

‘প্রশ্নই ওঠে না (ছাড় দেয়ার)। যেহেতু পরশুদিনই দল চলে যাচ্ছে সুতরাং এটি নিয়ে বেশি কথা আমরা বলছি না। তবে এটা অবশ্যই দুঃখজনক।‘

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত