প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খেলায় পরিপূর্ণ মনোযোগী হতে ক্রিকেটারদের সামাজিক মাধ্যম এড়িয়ে চলতে বললেন মাশরাফি

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিশ্বকাপ ঘিরে বাংলাদেশ দলের কাছে ভক্তদের আশা অনেক বেশি। বিশেষ করে দলের সিনিয়র তারকাদের থেকে ভালো কিছুই চাইবেন ভক্তরা। এই ভক্তরাই বাঁচিয়ে রেখেছে দেশের ক্রিকেট, এমনটাই বললেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। এই ভক্তরাই ক্রিকেটারদের প্রশংসার পাশাপাশি সমালোচনাও করেন। তাদের সমালোচনা থেকে বাঁচতে এবং ক্রিকেটে পূর্ণ মনোযোগ দিতে সামাজিক মাধ্যম থেকে দূরে থাকতেও বললেন তিনি।

ইন্টারনেট আর আধুনিক মুঠোফোনের সহজলভ্যতায় বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। ফেসবুক, টুইটারের মত জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে বাংলাদেশি ব্যবহারকারীর সংখ্যা কম নয়। কিন্তু এই ব্যবহারকারীরাই কখনো কখনো হয়ে ওঠেন তারকাদের ‘অভিশাপ’।

বিশেষ করে ভুক্তভোগী হতে হয় ক্রিকেটারদের। বাংলাদেশ দলের হয়ে তাদের পারফরম্যান্স বিবেচনা করে নানা ধরনের মন্তব্য আসে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। পারফরম্যান্স একটু পড়তির দিকে গেলেই শুরু হয় মাত্রাতিরিক্ত সমালোচনা।

তবে সেই সমালোচনা শুধু ব্যক্তিবিশেষেই সীমাবদ্ধ থাকে না, ছড়িয়ে পড়ে তারকাদের পরিবারের দিকেও। এ নিয়ে অতীতে বেশ অস্বস্তিকর পরিস্থিতিরও সৃষ্টি হয়েছে। আর সেসব দিক মাথায় রেখেই হয়ত, আসন্ন বিশ্বকাপের সময়কালে টাইগারদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।

বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক মাশরাফি সোমবার (২৯ এপ্রিল) ‘হোম অব ক্রিকেট’ এ সংবাদ সম্মেলনে জানান, তার ওপর কিংবা আরেক তারকা ক্রিকেট সাকিব আল হাসানের ওপর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম কখনো প্রভাব ফেলে না। তবে অন্য ক্রিকেটারদের ওপরও যেন এর নেতিবাচক প্রভাব না পড়ে এজন্য দুই মাস যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন মাশরাফি।

তিনি বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ক্রিকেট ভালো খেলতে বা খারাপ খেলতে কখনো প্রভাব রাখবে না, বিশেষ করে আমাদের (ব্যবহৃত) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম।’

‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম আমার ওপর প্রভাব ফেলে না, সাকিবের (সাকিব আল হাসান) ওপরও না। যাকে প্রভাবিত করে তা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার। কিন্তু এটা থেকে দুইটা মাস দূরে থাকতে পারলে ভালো হয়। ক্রিকেটের জন্য ভালো হবে।’– বলেন মাশরাফি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত