প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আপোষযোগ্য মামলাগুলো আদালতের বাইরে নিষ্পন্ন হলে জট কমবে, বললেন আইনমন্ত্রী

ফাতেমা ইসলাম : আদালতে মামলার জট নিয়ে প্রধান বিচারপতির উদ্বেগ সম্পর্কে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সোমবার বিবিসির সঙ্গে সাক্ষাতকারে বলেন, সারাদেশে বিচারকের অপ্রতুলতা আছে। তবে গত বছরও যখন আমি আইনমন্ত্রী ছিলাম তখনই পদক্ষেপ নিয়ে বাংলাদেশের জুডিশিয়াল কমিশনার অ্যাসিস্টেন্ট রিক্রুটমেন্ট প্রসেসটা তরান্বিত করেছি। এই রিক্রুটমেন্ট প্রসেসটা আগে বছরে ১ থেকে ২বার করা হতো কিন্তু আমরা ৩ থেকে ৪ বার রিক্রুট করেছি। এবং এটা চলমান থাকবে।

তিনি বলেন, গত বছর আমরা একটা ওয়েবপেজ এপ্লিকেশন শুরু করেছি সেটা হচ্ছে জাস্টিস অডিট। সারা বিশ্বে বাংলাদেশ একমাত্র দেশ যেখানে জাস্টিস অডিটের মাধ্যমে বিচারবিভাগের সমস্যাগুলো কোথায় কিভাবে রয়েছে এবং এর সমাধান করা যায় সেটা চিহ্নিত করা হয়। সেটা হলো আমাদের মামলার সংখ্যা কত, কোন অপরাধটা আমাদের দেশে বেশি হয় তা চিহ্নিত করে প্রায়াধিকার নির্ণয় করা।

তিনি আরো বলেন, নিরীক্ষায় যেটা বেরিয়ে এসেছে সে আলোকে ব্যবস্থা নিয়েছি। প্রধান বিচারপতি বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির ব্যাপারে যেটা বলেছেন সেটার জন্য আসলে জনগণের আস্থার জায়গায় পৌঁছাতে হবে। বিরোধ নিষ্পত্তির ব্যাপারে নিজ উদ্যোগে আদালতের কাছে আবেদন করেছি। আদালত যদি আপোষযোগ্য ফৌঁজদারি মামলা ও নিষ্পত্তিযোগ্য দেওয়ানি মামলার ব্যাপারে বলে যে তোমরা বাইরে গিয়ে এটা সেটেল করে আসো এরকম একটা নির্দেশনা যদি তারা দেন তাহলে এই বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির ব্যাপারটা আরো বেগবান হবে।

তিনি আরো বলেন, এই জিনিসটাও রাতারাতি হবে না, এরকম কোথাও হয়নি। আমি প্রধান বিচারপতিকে এ ব্যাপারে বলেছি একটা ডাইরেকশন যদি তিনি জুডিশিয়ারিকে দেন, তারা যেন আপোষযোগ্য মামলাগুলোর ব্যাপারে কথা বলেন। প্রধানবিচারপতি এ ব্যাপারে চিন্তাভবনা করবেন বলে আমাকে আশ্বাস দিয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত