প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চার বছরে তৃতীয়বারের মতো সাধারণ নির্বাচনে ভোট দিয়েছে স্পেন

লিহান লিমা: গত চার বছরে এ নিয়ে তৃতীয় বারের মতো স্পেনে সাধারণ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার ভোট সকাল ৯টায় শুরু হয়ে রাত ৮টায় শেষ হয়। ভোটের পূর্ব সমীক্ষায় ধারণা করা হচ্ছে, ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো শেনচেজ সরকারের মধ্য-বামপন্থী সোশ্যালিস্ট পার্টি বেশিরভাগ ভোটে জয় পেলেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভে ব্যর্থ হবে। সেইসঙ্গে কট্টর ডানপন্থী ভক্স পার্টি পার্লামেন্টে বেশকিছু আসন লাভ করতে পারে। গার্ডিয়ান, আল জাজিরা

ফেব্রুয়ারিতে কাতালোনিয়ার স্বাধীনতাকামী দল ২০১৯ সালের বাজেট বিল প্রত্যাখ্যান করলে পেদ্রো শেনচেজ সাধারণ নির্বাচনের ডাক দেন। নির্বাচনে পাঁচটি প্রধান দলের মধ্যে দুইটি সম্ভব্য জোট হতে পারে। একটি বামপন্থী ও আঞ্চলিক জাতীয়তাবাদী দলগুলো, আরেকটি ঐতিহ্যবাহী মধ্য ডান ও ফার-রাইট দলগুলোর মধ্যে। শেনচেজ বলেছেন তার দল পিএসওই বামপন্থী পোডেমোসের সঙ্গে জোট বাঁধতে প্রস্তুত। নির্বাচনে পেদ্রোর সোশ্যালিস্ট পার্টির পাল্লা ভারী হলেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনে ১৭৬টি আসন পাবে না তারা। তাদেরকে সরকার গঠনের জন্য জোট দলগুলোর দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে। শেনচেজ শুক্রবার ডানপন্থী দলের উত্থান নিয়ে সতর্ক করে বলেছেন, ‘ব্রেক্সিটের পর যা ঘটছে আগে তা কখনোই ঘটে নি। কেউ ভাবে নি ট্রাম্প মার্কিন প্রেসিডেন্ট হবেন, কিংবা ব্রাজিলে বোলসানারো। স্পেনকে এগিয়ে নিয়ে সবার ভোটকেন্দ্রে আসা উচিত।’

দুর্নীতির কারণে কনজারভেটিভ পিপলস পার্টি অনাস্থা ভোটে পরাজিত হওয়ার পর ২০১৮ সালের জুন থেকে শেনচেজের সোশ্যালিস্ট পার্টি স্পেনকে শাসন করে আসছে। কিন্তু পার্লামেন্টের ৩৫০টির মধ্যে তাদের আসন মাত্র ৮৪টি। ফলে যে কোন আইনী বিষয় পাশ করাতে হিমশিম খাচ্ছে পেদ্রোর সংখ্যালঘু সরকার। বিরোধীরা শেনচেজকে দুর্বল ও কাতালোনিয়ার স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠিগুলোর প্রতি নমনীয় বলে দাবি করছে। তারা বলছে, ২০১৭ সাল থেকে স্পেনের রাজনীতিকে উত্তাল করে তোলা কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার এই ইস্যুতে শেনচেজের আরো কঠোর অবস্থান নেয় উচিত।

আঞ্চলিক এই সংকট থেকে জোর পেয়েছে ভক্স পার্টি। কংগ্রেসে কোন আসন ছাড়াই তারা আলোড়ন তুলতে সক্ষম হয়। গত ডিসেম্বরে তারা আন্দ্রালুসিয়ার আঞ্চলিক নির্বাচনে ১২টি আসন পায়। ১৯৭৫ সালে স্বৈরশাসক ফ্রান্সিসকো পেদ্রোর মৃত্যুর পর এই প্রথমবারের মতো এমন একটি দল স্পেনের গণতন্ত্রে ফিরে আসে। ভক্স পার্টি কাতালানের স্বাধীনতাকামী দলগুলোকে নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব ছাড়াও নারীবাদ ইস্যুতে বিরুপ মন্তব্য করে আসছে। সমীক্ষা ঠিক থাকলে, রোববার নির্বাচনে ভক্স পার্টি ১১ শতাংশ আসন পাবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত