প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘রাইড শেয়ারিং কোম্পানিগুলোতে ভুয়া ঠিকানা দিয়ে নিবন্ধন করেন চালকরা’

সুজন কৈরী : ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের ডিসি বিপ্লব কুমার সরকার বলেছেন, অ্যাপসভিত্তিক রাইড শেয়ারিং কোম্পানিগুলোতে চালকরা ভুয়া ঠিকানা দিয়ে নিবন্ধন করছে। এ বিষয়গুলো গুরুত্ব দিয়ে দেখতে রাইড শেয়ারিং কোম্পানিগুলোকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তা না হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানানো হয়েছে। রোববার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, সড়ক দুর্ঘটনার পর হাসপাতালে উবারের বাইক চালক সুমন যে ঠিকানা দিয়েছিলেন তা ভুয়া ছিল। এমনকি তার নম্বর দিয়ে যে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে সেটিও ভুয়া। উবারে রেজিস্ট্রেনের সুমনের দেয়া ঠিকানাও ভুয়া। যার ফলে রাইডার সুমনে খুঁজে পেতে বেগ পেতে হয়েছে। যেকোনো ঘটনার পর অপরাধীদের আইনের আওতায় আনতে আমরা দ্রুত চেষ্টা করি, কিন্তু এ ক্ষেত্রে আমাদের পদে পদে বাধা পেতে হয়েছে। উবারে ভুয়া ঠিকানা দিয়ে রাইডার নিবন্ধন করে সড়কে বাইক চালানোর অনুমতি পায়। এটা দেখার কেউ নেই। তাদের আরোহীদের জন্য নিম্নমানের হেলমেট দেয়া হয়। এসব দ্রুত ঠিক করতে হবে।

উবার কর্তৃপক্ষের গাফিলতির সমালোচনা করে বিপ্লব কুমার বলেন, ঘটনার পর তাৎক্ষণিকভাবে অসংখ্যবার উবারের কাছে তথ্য চাওয়া হলে তারা কোনো সহযোগিতা করেনি। কোন ব্যক্তির বিষয়ে যাচাই-বাছাই ছাড়া ভুল ঠিকানায় রেজিস্ট্রেশন করে ফেলে উবার কর্তৃপক্ষ। এছাড়া উবারসহ এসব রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠানগুলো বাণিজ্যিকভাবে গাড়ি চালানোর জন্য চালকের শারিরীক ও মানসিক দক্ষতা থাকার বিষয়টিও যাচাই-বাছাই করে না। ওইদিন চালক সুমন বেপরোয়া গতিতে বাইক ড্রাইভ করছিলেন এবং অসৎ উদ্দেশ্যে বারবার ব্রেক করছিলেন। গাফিলতির জন্য উবারের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঘটনার আরো তদন্ত করা হবে। এ ঘটনায় যারই গাফিলতির প্রমাণ পাওয়া যাক, তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

এ বিষয়ে উবারের সিনিয়র ম্যানেজার আরমানুল রহমান বলেন, রাইড শেয়ারিংয়ের একটা নীতিমালা হচ্ছে। আমরা পুলিশ, সরকার, বিআরটিএ’র সঙ্গে কাজ করছি। সেবাটি আরো ভালোভাবে দেয়ার বিষয়ে চেষ্টা করছি। তবে নিম্নমানের হেলমেট ও ভুয়া ঠিকানায় চালকদের নিবন্ধনের বিষয় জানতে চাইলে এই কর্মকর্তা কোনো মন্তব্য করেননি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত