প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশেষজ্ঞরা পশ্চিম-উত্তরাঞ্চলে গ্যাস অনুসন্ধানের পরামর্শ দিলেও সর্বত্র অনুসন্ধান সম্ভব নয় বলেন, বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

নুর নাহার : দেশে যে প্রাকৃতিক গ্যাস পাওয়া যায়, তার সবটাই তোলা হচ্ছে কুমিল্লা ও সিলেট অঞ্চল থেকে। সম্ভাবনা থাকলেও দেশের অন্যান্য অঞ্চলে তেমন একটা অনুসন্ধান করা হয়নি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কঠিন হলেও পশ্চিম ও উত্তরাঞ্চলে গ্যাস অনুসন্ধান সময়ের দাবি। যদিও বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী মনে করেন, চাইলেই সবদিকে গ্যাস অনুসন্ধান চালানো সম্ভব নয়।

দেশের ২৭টি ক্ষেত্রে বর্তমানে উত্তোলনযোগ্য গ্যাস আছে মাত্র ১১ দশমিক ৪৭ টিসিএফ। যা ফুরিয়ে যাবে ২০৩০ সালের মধ্যেই।
মূলত দেশের পূর্বভাগের কুমিল্লা আর সিলেট অঞ্চলেই গ্যাসক্ষেত্রগুলোর অবস্থান। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যা আবিষ্কারে বেগ পেতে হয়নি তেমন একটা।

জ্বালানি ও ভূতত্ব বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক বদরুল ইমাম বলেন, এগুলো করতে থ্রিডি লাগবে। বড় ধরণের অনুশীলন লাগবে। কিন্তু এটি পাওয়া যাবে। রাষ্ট্রায়ত্ত গ্যাস অনুসন্ধান ও উত্তোলন কোম্পানি-বাপেক্সের মাধ্যমে ২০২১ সালের মধ্যে ১০৮টি কূপ খননের একটি মহাপরিকল্পনা সম্প্রতি বাতিল করে সরকার। জ্বালানি বিভাগের সূত্র বলছে, এর আগে ৪টি কূপ খননে আশানুরূপ সাফল্য না আসায় এ সিদ্ধান্ত। প্রতিটি কূপ খননে বাপেক্সের খরচ হয়, ৮০ থেকে ১০০ কোটি টাকা।

বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, আপনারা যদি মনে করেন যে ১০ হাজার টাকা খরচ করলাম গর্ত হয়ে গেল আর আমরা গ্যাস পেয়ে গেলাম বিষয়টি এমন নয়। এটি করতে গিয়ে যতো টাকা খরচ হবে তার অর্ধেকও যদি না তোলা যায় তাহলে কি হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত