প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অবৈধ ভবন অনুসন্ধানে পুনরায় যাবে দুদক

হ্যাপি আক্তার : ছয় বছর আগে থেমে যাওয়া ৬ হাজারের অধিক অবৈধ ভবনের বিষয়ে নতুন অনুসন্ধানে নামছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। অনিয়ম-দুর্নীতির মাধ্যমে গড়ে ওঠা ভবনের বিষয়ে তথ্য দিতে এরই মধ্যে রাজউককে চিঠি পাঠিয়েছে দুদক। এদিকে রাজউকের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের তালিকা তৈরির কাজও শুরু করেছে দুদকের গোয়েন্দা ইউনিট। ডিবিসি নিউজ।
রাজধানীতে অনিয়মের মাধ্যমে গড়ে ওঠা বহুতল ভবনের বিষয়ে ২০১৩ সালে অনুসন্ধান শুরু করেছিলো দুদক। রাজউকের কাছে তখন নকশা বহির্ভ‚ত ভবনের তথ্য চেয়ে চিঠিও দেয়া হয়েছিলো। এরপর রাজউক ৬ হাজার ২০৪টি অবৈধ ভবনের তথ্য দেয় দুদককে। পরে অজ্ঞাত কারণে এ অনুসন্ধান থেমে যায়।

ছয় বছর পর এ অনুসন্ধান আবার সচলের উদ্যোগ নিয়েছে দুদক। স¤প্রতি রাজউকের কাছে এসব ভবনের বিষয়ে তথ্য চেয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। নকশা পরিবর্তন করে এসব ভবনের বিষয়ে কি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, তা রাজউক চেয়ারম্যানের কাছে জানতে চেয়েছেন দুদক সচিব।

নথিপত্র বলছে, নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে রাজধানীতে গড়ে উঠেছে সাড়ে ১১ হাজার ভবন। রাজউক কর্মকর্তাদের ঘুষ দিয়েই নকশা পরিবর্তন করে এসব ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। এসব অভিযোগও খতিয়ে দেখবে দুদক।

দুর্নীতি দমন কমিশনের সচিব মুহাম্মদ দিলোয়ার বখতিয়ার বলেন, ‘তালিকা যেটি আমরা পূর্বে পেয়েছিলাম, সেই তালিকায় অবৈধভাবে নির্মিত ভবন মালিকদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে? তাদেরকে চিহ্নিত করা হয়েছে কিনা? সেটিও জানা প্রয়োজন।’

তদন্তে দুদককে সহযোগিতার কথা উল্লেখ করে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, ‘আমরা চাই তদন্তের মাধ্যমে সত্য বেরিয়ে আসুক। দুর্নীতির কোনো অভিযোগ থাকলে তার গভীরে গিয়ে তদন্ত হোক। এ ক্ষেত্রে রাজউকসহ আমার মন্ত্রণালয়ের সকল সংস্থা সর্বোচ্চ সহযোগিতা করবে।’ সম্পাদনা :

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত