প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দেশের ঋণ নেয়ার প্রক্রিয়া রাজনৈতিক নয় অর্থনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গিতে হওয়া উচিত, বললেন ড. আহসান এইচ মনসুর

মঈন মোশাররফ : ভারতের সংবাদ সংস্থা এএনআই এক প্রতিবেদনে বলেছে, বাংলাদেশের পায়রা বন্দরে চীনের যে ৬০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করার কথা, সেটা হলে পায়রা বন্দরের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারে চীন। নিজের ভূ-রাজনৈতিক স্বার্থে বাংলাদেশকে ঋণের ফাঁদে ফেলতে চাইছে চীন। পাকিস্তানের গোয়াদার, শ্রীলঙ্কার হাম্বানটোটা বন্দরের পর বাংলাদেশের পায়রা বন্দরের নিয়ন্ত্রণ নিতে চায় বেইজিং। ডয়চে ভেলে

এ প্রসঙ্গে পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান এইচ মনসুর শনিবার বলেন, আমরা যে কারোর কাছ থেকেই ঋণ নিতে পারি। সেটা আমাদের নিজেদের স্বার্থের কথা বিবেচনা করে নিতে হবে। এখন পর্যন্ত যা হচ্ছে, সেটা রাজনৈতিকভাবে। কিন্তু এটা আসলে অর্থনৈতিকভাবে হওয়া উচিত। অর্থনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে ভায়াবিলিটি নিশ্চিত করেই এটা করা উচিত, কিন্তু এটা হচ্ছে না।
তিনি বলেন, এই বিষয়টি শুধু আমাদের জন্য নয়, সবার জন্যই শিক্ষা। মালয়েশিয়া যেটা করলো, তারা ওই প্রজেক্ট ক্যানসেল করতে চাইলো, কিন্তু করতে পারলো না, তাদের ৩০ শতাংশ রিডাকশন দিতে হলো। অনেক ক্ষেত্রে আমাদেরও এমনটা হয়ে যাচ্ছে।

তিনি জানান, রাজনৈতিকভাবে হলে যেটা হয় এর রিটার্নটা আসে না। অনেকগুলো প্রজেক্টই আমাদের হয়েছে, যার অর্থনৈতিক ভায়াবিলিটি নেই। এ ব্যাপারে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। আর চীনের ক্ষেত্রে যেটা হচ্ছে, অনেক কিছুই তাদের কাছ থেকে নিতে হয়। ফলে প্রজেক্টটা অনেক কস্টলি হয়ে যায়। এখানে আমাদের সতর্ক হওয়া উচিত।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত