প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিএনপির আরো ৪ এমপিকে শপথে বারণ তারেকের

নিউজ ডেস্ক : ঠাকুরগাঁও-৩ আসন থেকে নির্বাচিত জাহিদুর রহমান জাহিদ শপথ নিলেও নির্বাচিত অন্য ৪ জনকে থামানোর চেষ্টা করছে বিএনপি। দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান গত দুই দিনে বেশ কয়েকবার ফোন করে তাদের শপথ না নেওয়ার অনুরোধ করেছেন। পাশাপাশি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও এ ব্যাপারে তাদের সঙ্গে দফায় দফায় কথা বলছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। কালের কণ্ঠ

জানতে চাইলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের নির্বাচিত এমপি উকিল আবদুস সাত্তার গতকাল শুক্রবার জানান, লন্ডন থেকে তারেক রহমান তাকে ফোন করেছেন এবং সংসদে যোগদান না করার নির্দেশনা দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘দলের বাইরে কী করে যাব? যাওয়া কঠিন!’

এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপি সরকারের সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি মহাসচিবের সঙ্গেও এ বিষয়ে আলাপ হচ্ছে। তিনিও দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে সংসদে না যাওয়ার কথা বলেছেন।’

অবশ্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের এমপি মো. হারুনুর রশীদ এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের আমিনুল ইসলাম তারেক রহমানের ফোন পাওয়ার কথা অস্বীকার করেন। তবে তারা বলেন, ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত তারা দলের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করবেন। এরপর ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নেবেন।

‘নানামুখী চাপে মন-মেজাজ খুব একটা ভালো নেই’, বাড়তি যোগ করেন নতুন নির্বাচিত এমপি আমিনুল ইসলাম।

বগুড়া-৪ আসনের এমপি মো. মোশাররফ হোসেন জানান, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সরাসরি নয়, অন্য একটি মাধ্যমে তার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু পাননি। পরে তিনি আবার চেষ্টা করলেও তারেক রহমানকে পাওয়া যায়নি। তবে তিনি বলেন, ‘আমার সঙ্গে কথা হবে।’

এক প্রশ্নের জবাবে মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘মহাসচিব মির্জা ফখরুল সাহেবের সঙ্গে প্রতিদিনই যোগাযোগ হচ্ছে। শেষ দিন পর্যন্ত দলের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় থাকব।’

দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে হঠাৎ গত বৃহস্পতিবার শপথ নেন ঠাকুরগাঁও-৩ আসন থেকে নির্বাচিত বিএনপির এমপি জাহিদুর রহমান। এতে বিএনপি বেশ বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে। দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের মধ্যে এ ঘটনায় ক্ষোভের সঞ্চার হয়। পাশাপাশি বিভিন্ন মহলে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে, মির্জা ফখরুল ছাড়া বাকি ৪ এমপি যেকোনো দিন শপথ নেবেন। এমন পরিস্থিতিতে সার্বিক বিষয়ে আলোচনার জন্য আজ শনিবার বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

জানতে চাইলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘শপথ না নেওয়ার বিষয়ে দলীয় সিদ্ধান্ত এখনো বহাল আছে। যারা দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ আজ শনিবার অনুষ্ঠেয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে সার্বিক বিষয়ে আলোচনা হবে বলেও জানান তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত