প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সরকারি অনুদানের মধ্য দিয়ে যাত্রা শুরু হচ্ছে ‘অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া’র

সৌরভ নূর : চলচ্চিত্র শিল্পে মেধা ও সৃজনশীলতাকে উৎসাহিত করতে এবং বাংলাদেশের আবহমান সংস্কৃতি সমুন্নত রাখতে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, মানবীয় মূল্যবোধসম্পন্ন, জীবনমুখী, রুচিশীল ও শিল্পমানসম্পন্ন পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা ও সহায়তা প্রদানের উদ্দেশ্যে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র অনুদান কমিটির সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে চলচ্চিত্র নির্মাণে সংশ্লিষ্ট প্রযোজকদের ২০১৮-১৯ অর্থবছরে শিশুতোষ শাখা, প্রামাণ্যচিত্র শাখা ও সাধারণ শাখায় মোট আটটি স্বল্প ও পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রকে মনোনীত করে অনুদান প্রদান করা হয়েছে। এবারের অর্থবছরে পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমার পাঁচটি গল্পের মধ্যে অনুদান কমিটির সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে লেখক আবদুল মান্নানের ছোটগল্প ‘অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া’ অবলম্বনে আওরঙ্গজেবের চিত্রনাট্যে এবং হোসনে মোবারক রুমির পরিচালনায় ‘অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া’ অনুদানের জন্য মনোনীত একটি। গল্পের লেখক আবদুল মান্নান তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় জানান, মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন এবং পরবর্তী সময়ের প্রেক্ষাপটে গল্পটি গড়ে উঠেছে এবং আমার লেখা ছোট গল্পগুলোর মধ্যে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অন্যতম। এছাড়া গল্পটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে লেখা। তবে এ রকম একটা স্বীকৃতি পেয়ে আমি সত্যিই আনন্দিত এবং অনুদান কমিটি ও বাংলাদেশ সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

গল্পটিকে চিত্রনাট্যে রূপদানকারী তরুণ নির্মাতা ও লেখক আওরঙ্গজেব বলেন, গল্পটা সহজ ও সত্য হলেও গল্পে বাস্তবতার কাছে যাওয়ার একটা অসাধারণ শক্তি আছে। যে কারণে চিত্রনাট্য করতে গিয়ে অন্য রকম ভালোবাসা ও সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা নিয়ে লিখেছি এবং গল্পের দৃশ্যায়ন করেছি। এছাড়া গল্পকারসহ রুমি ভাই ও অনুদান কমিটি এবং সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি। শেষটা অশানুরূপ না হলেও আশার থেকে কম হবে না বলে আমি মনে করি।

গল্পের নির্মাতা হোসনে মোবরক রুমি বলেন, আমার মনে হচ্ছে দায়িত্ব বেড়ে গেলো। নিজেকে আগামীকালের চেয়ে আজকে ভারি লাগছে। আমি সবসময় মনে করি, শিল্প বা চলচ্চিত্রের প্রতি আমার একটা দায়বদ্ধতা আছে। সেই জায়গা থেকে যতোটা সম্ভব গুছিয়ে কাজটা করতে চাই। পাশাপাশি যে মানুষগুলো বিশ্বাস করছে আমি এই দায়িত্ব ঠিকঠাক পালন করতে পারবো, তাদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। উল্লেখ্য, আবু রায়হান, হুমায়রা বিলকিস, পুরবী মবিন, মীর সাব্বির, খান শরিফুদ্দিন, কাজী মাসুম, লাকী ইনাম ও সারাহ বেগম কবরী উক্ত অনুদান পেয়েছেন ।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত