প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রানা প্লাজার স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে খেতাবপ্রাপ্ত সেই হিরো হিমু ভবন ধ্বসের বার্ষিকীতেই কেন আত্মহত্যা করলেন?

মৌরী সিদ্দিকা : রানা প্লাজা ধ্বসে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করে পরিচিতি লাভ করা হিমু গায়ে আগুন জ্বালিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তার পুরো নাম নওশাদ হাসান হিমু। -ঢাকা ট্রিবিউন

২০১৩ সালে রানা প্লাজায় স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করে প্রায় হিরোতে পরিণত হয়েছিলেন হিমু। সে কারণে তাকে হিরো হিমু বলে অনেকে চিনতেন। বরিশালের নাজিরপুরে তার জন্ম। বুধবার রাতে গায়ে কেরোসিন ঢেলে তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। রানা প্লাজা ধ্বসের ৬ষ্ঠ বার্ষিকীতে গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার নেপথ্যে কি কারণ বিদ্যমান তা রীতিমত গবেষণার বিষয়।

সাভার বিরুলিয়ায় একটি বাসায় থাকতেন হিমু। তার কতগুলো পোষা প্রাণী ছিল। রাস্তায় কুকুরদেরও তত্ব তালাশ নিতেন হিমু। তবে তার কিছু অস্বাভাবিকতা ছিল বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়। রানা প্লাজা উদ্ধার সংস্থার সভাপতি হাসিদুর রহমান লেবু বলেন, রানা প্লাজা ধ্বসের সময় কৃতিত্বপূর্ণ অবদান রেখেছিলেন হিরো হিমু।

হিমুর মা আফরোজা বেগম বলেন, বুধবার তাদের মধ্যে যখন কথা হয় তখন তিনি তার ছেলেকে খুবই হতাশ দেখেছেন। আফরোজা বেগম বলেন, বুধবার তার ছেলে তাকে বেশ কয়েকবার ফোন করে। এতবার সে সাধারণত ফোন কখনো করে না। তার কণ্ঠও অন্যদিনের মত ছিল না। এমন কি গায়ে আগুন দেয়ার কয়েক মিনিট আগেও তাদের মধ্যে কথা হয়েছে বলে তিনি জানান। এর কিছুক্ষণ পরে তাকে হাসপাতালে নেয়ার জানানো হয় আফরোজা বেগমকে।

আফরোজা বেগম বলেন, সাভারে আমাদের এক খন্ড জমি রয়েছে। সেই ফ্ল্যাটের পাশেই ২৫ দিন আগে হিমু একা ফ্ল্যাট ভাড়া নেয়। সেখানেই সে বসবাস করছিল। সেই জমিতে একটা বাড়ী করারও পরিকল্পনা ছিল আমাদের। আফরোজা জানেন না, কেন তার ছেলের মতিগতি এমন হল। তার মানসিক অবস্থা কি আরো ভেঙ্গে পড়েছিল ? রানা প্লাজা ধ্বসের সময় হিমু শ্যামলীতে বসবাস করতেন। আফরোজা বেগম আমি এবং হিমু রক্ত দিতে রানা প্লাজায় গিয়েছিলাম। যখন ও দেখল বহু দেয়ালে পড়ে আহত সে তখন তাদের উদ্ধার কাজে যোগদান করে।

আফরোজা বেগম বলেন, রানা প্লাজা উদ্ধার পর্ব শেষ না হওয়া পর্যন্ত সে তাতে অংশ নেয়। পরবর্তী ৬ বছরে সে রানা প্লাজায় আহতদের সার্বক্ষণিক দেখা শোনায় নিজেকে ব্যস্ত রাখতো। রানা প্লাজায় আটকে পড়াদের দুদর্শা নিয়েই সে সারাক্ষণ কথা বলতো। তাদের নিয়ে টেনসন করতো।

হিমুর মা জানায়, তার ছেলের আয় রোজগার ভালোই ছিল। কুকুরদের প্রশিক্ষক ছিল সে। তবে হঠাৎ করে আত্মহত্যা করার মত কি মানসিক অবস্থা গঠল আমি বুঝতে অক্ষম।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত