প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জেট এয়ারে বিনিয়োগ করতে চান ব্রিটিশ উদ্যোক্তা জেসন আন্সওয়ার্থ

রাশিদ রিয়াজ : ৮ হাজার কোটি টাকার দেনার দায়ে ডুবে যাওয়া ভারতের জেট এয়ারওয়েজে নতুন করে বিনিয়োগে চারটি কোম্পানির আগ্রহ দেখানোর পাশাপাশি এক ব্রিটিশ উদ্যোক্তা জেসন আন্সওয়ার্থ এয়ারলাইন্সটি কিনে নেওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছেন। টুইটারের মাধ্যমে তিনি জানিয়েছেন, স্টেট ব্যাংকের চেয়ারম্যান রজনীশ কুমারকে জেট এয়ার কিনতে একটি চিঠি পাঠিয়েছে তার কোম্পানি অ্যাটমস্ফিয়ার ইন্টারকন্টিনেন্টাল এয়ারলাইন্স।

অতীতে গ্রাউন্ড স্টাফ হিসেবে কয়েকটি এয়ারলাইন্স ও বিমানবন্দরে কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে আন্সওয়ার্থের। এও দাবি করেছেন, বন্ধ হয়ে যাওয়া জেট এয়ারওয়েজের পিছনে অর্থ বিনিয়োগের জন্য তার সঙ্গে বেশ কিছু বিনিয়োগকারী রয়েছেন। তবে আন্সওয়ার্থের কোম্পানির যোগ্যতা সম্পর্কে অবশ্য এর মধ্যে বেশ কিছু প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। একই সঙ্গে নিলামকারী সংস্থা এসবিআই ক্যাপস-এর সঙ্গে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে জেসনকে। কারণ ওই নিলাম সংস্থা ভারতের স্টেট ব্যাংকের নেতৃত্বে থাকা ঋণ প্রদানকারীদের পাওনা মেটাতে জেট এয়ারওয়েজের মালিকানা স্বত্ব নিলামের দায়িত্বে রয়েছে।

অ্যাটমস্ফিয়ার ইন্টারকন্টিনেন্টাল এয়ারলাইন্স-এর নিজস্ব ওয়েবসাইট বলছে, অতীতে গ্রাউন্ড স্টাফ হিসেবে কয়েকটি এয়ারলাইন্স ও বিমানবন্দরে কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে আন্সওয়ার্থের। তবে তার দাবি, বন্ধ হয়ে যাওয়া জেট এয়ারওয়েজের পিছনে অর্থ বিনিয়োগের জন্য তার সঙ্গে বেশ কিছু বিনিয়োগকারী রয়েছেন।

আন্সওয়ার্থের কোম্পানির যোগ্যতা সম্পর্কে অবশ্য এর মধ্যে বেশ কিছু প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। ২০১৫ সালে সংস্থা চালু হওয়ার পরে এখনও পর্যন্ত কোনও রুটে বিমান পরিষেবা চালু করতে পারেনি এআইএ। বেশ কিছু দিন ধরে ব্রিটেন ও থাইল্যান্ডের মধ্যে ফ্লাইট চালু করার পরিকল্পনা থাকলেও আজ অবধি তা বাস্তবায়িত হয়নি। ওই সংস্থা আপাতত দু’টি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর বিমান এবং দু’টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এনজি বিমান লিজে নেওয়ার চেষ্টা করছে বলে ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে।

জেসন দাবি করছেন, জেট কেনার পরে তার নতুন নামকরণ করে আন্তর্জাতিক উড়ানের উপরেই তিনি জোর দিতে চান। এই ব্যাপারে ভারতের স্টেট ব্যাংক থেকে আর্থিক সহায়তা নেওয়ার কথাও তিনি চিন্তা করছেন। টাইমস অব ইন্ডিয়া

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত