প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানীর অভিযোগ

মৌরী সিদ্দিকা : জয়পুরহাটে একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছেন অভিভাবকরা। আর এর সত্যতাও পেয়েছে শিক্ষা অফিস। তবে বিষয়টিকে ষড়যন্ত্র বলে দাবি করছেন অভিযুক্ত ওই শিক্ষক। ডিবিসি

২০১৫ সালের ২৫শে মার্চ জয়পুরহাট সদরের জামালপুরের দাদড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন নূর আলম। অভিযোগ রয়েছে, যোগদানের পর থেকেই কোমলমতি ছাত্রীদের বিভিন্ন কৌশলে যৌন হয়রানি করেন তিনি। এ বিষয়ে তাকে বিভিন্ন সময় সতর্ক করেও কাজ হয়নি। সবশেষ গত মঙ্গলবার এক শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানি করায় তার ওপর ক্ষিপ্ত হয় স্থানীয়রা।

তারা জানায়, ছোট ছোট বাচ্ছাদের সঙ্গে তিনি অনেক অশালীন কাজ করেন। তাদের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় হাত দেন। এর প্রমাণও আমাদের কাছে আছে। আমরা চাই এর সুষ্ঠু বিচার হোক।
তবে, অভিযোগ অস্বীকার করে নুর আলম জানান তার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা হচ্ছে।

দাদরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুর আলম বলেন, আমি এমন কোন কিছুই করিনি। আমি ওদের ভালোবাসা দিয়েই স্কুলে নিয়ে আসি, কোন প্রকার খারাপ কোন উদ্দেশ্য নিয়ে কিছুই করেনি।
এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আশরাফুর কবীরকে প্রধান করে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্তে অভিযোগের সত্যতাও পাওয়া গেছে।

জয়পুরহাট সহকারি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আশরাফুল কবীর বলেন, আমাদের কাছে এমন একটি অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। আমরা তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিব।

অভিযোগ রয়েছে, এর আগে নুর আলম যে বিদ্যালয়ে ছিলেন, সেখানেও একই কাজ করেছেন তিনি। এজন্য লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানাও দিয়েছেন তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত