প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গবেষণায় জানা যায় পাইরিসির কারণে বাংলাদেশের মিউজিক সেক্টরে বছরে চৌদ্দশত কোটি টাকার ক্ষতি হয়

কেএম নাহিদ : আজ আন্তর্জাতিক মেধা সম্পদ দিবস। মেধাসত্ত্ব সুরক্ষা এবং এর গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনত করার জন্য প্রতিবছর এইদিনটি পালন করা হয়। মেধাসত্ব অধিকার লঙ্ঘনের ফলে, ব্যবসা বানিজ্য থেকে শুরু করে, শিল্প সাহিত্য, সংস্কৃতি, সবকিছুই ক্ষতির সম্মুখীন হয়। মিউজিক পাইরেসি সম্পর্কে পপশিল্পী এলিটা করিম শুক্রবার বিবিসির সঙ্গে সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মিউজিক ‘ল’ যখন কেউ না মানে, তখন এর প্রভাবে শিল্পী, লেখক, কম্পোজার, ডিরেক্টরসহ সংশ্লিষ্ট সবাই ক্ষতির সম্মুখীন হয়।

তিনি বলেন, যারা বই লিখছেন তাদের বই কিনলে এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাই সে অর্থ পান। সেটা আমাদের দেশের অনেক মানুষই জানেন না। সেই কালচারটাই তৈরি হয়নি। এর জন্য এর সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা কম দায়ী নয়। কিছু সংগীত পরিচালক মনে করেন, তার গানটা যতো সংখ্যক মানুষ শুনবে তার গানটা প্রসার হবে। সে তার তৈরি করা গানটা থেকে মুনাফা অর্জন করতে পারেন।

এক গবেষণায় দেখা গেছে শুধু পাইরেসির কারণে মিউজিক সেক্টরে ১৪শত কোটি টাকার ক্ষতি হয়। এটা মিউজিক শিল্পের জন্য অনেকটা অর্থ।

তিনি আরো বলেন, পাইরেসি আইনটাকে মান্য করানোর জন্য সরকারকে পদক্ষেপ নেয়া জরুরী। কারণ একটি আইন হয়েছে তা না মানা অপরাধ। কেনো অপরাধের সাজা দিতে পারে না সরকার। সরকার পদক্ষেপ নিলে পাইরেসি বন্ধকরা মোটেও অসম্ভব নয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত