প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘কাশ্মীরে মুসলিমদের নামাজ পড়তে দেওয়া হয় না’ পাকিস্তানি যুবকের মগজধোলাই

নিউজ ডেস্ক : ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু ও কাশ্মীর থেকে পাকিস্তানি এক জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল বুধবার মুহম্মদ ওয়াকার নামে ওই জঙ্গিকে বারামুল্লা জেলা থেকে গ্রেপ্তারে পর এক সংবাদ সম্মেলন করেন পুলিশ। সেখানে বলা হয়, কাশ্মীরে মুসলিমদের ভারতে সরকার নামাজ পড়তে দেয় না বলে যুবকদের ব্রেন ওয়াশ করা হতো।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, গ্রেপ্তারকৃত ওয়াকার মুম্বাই হামলার অন্যতম মাস্টার মাইন্ড জাকিউর রহমান লকভির ডান হাত। লকভির কাছে প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন সে। গত এক বছর বারামুল্লা এলাকায় সক্রিয় ছিল এই জঙ্গি। বারামুল্লাতেই নতুন করে হামলার ছক ছিল বলে জানা গেছে।

এক সাংবাদিক সম্মেলনে বারামুল্লা জেলার এসএসপি আবদুল কায়ুম বলেন, পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মিয়ানওয়ালির মহল্লা মিয়ানার বাসিন্দা সে। ২০১৭ সালের জুলাই মাসে অবৈধ ভাবে ভারতে অনুপ্রবেশ করে এই ওয়াকার। তারপর থেকে বারামুল্লায় জঙ্গি সংগঠন সক্রিয় করার কাজে নিয়োজিত ছিলেন তিনি।

পুলিশ জানায়, ওয়াকারের মগজধোলাই করা হয়। তাকে বলা হয়েছিল, ভারতে মুসলিমদের নামাজ পড়তে দেওয়া হয় না। এরপরেই সে জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তৈইবা’তে যোগ দেন। তাকে সে সময় আরও বলা হয়, কীভাবে পুরো কাশ্মীরজুড়ে মুসলিমদের নির্যাতন করা হয়। পুলিশের দাবি, এভাবেই কাশ্মীরি যুবকদের ভুল পথে চালিত করছে জঙ্গি সংগঠনগুলো।

বুধবার আরেকটি সাংবাদ সম্মেলনে জম্মু-কাশ্মীরের ডিজিপি দিলবাগ সিং জানান, গত এক বছরে কাশ্মীরি যুবকদের জঙ্গি সংগঠনে নাম লুকানোর প্রবণতা অনেক কমেছে। ২০১৮ সালে ২৭২ জন জঙ্গিকে হত্যা করা হয়েছে। প্রচুর পরিমাণে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত