প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রমজানে ১৮৭টি স্থানে টিসিবির পণ্য বিক্রয়, দ্রব্যমূল্য অস্বাভাবিক হবে না সংসদে কৃষিমন্ত্রী

তরিকুল সুমন : রমজানে নিত্য প্রয়োজনী দ্রব্য সামগ্রীর দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে রাজধানী, বিভাগীয় শহর প্রতিটি মোট ১৮৭টি গুরুত্বপূর্ণ স্থানে টিসিবি সাশ্রয়ী মূল্যে পণ্য বিক্রয় করবে। টিসিবি ডিলারদের মাধ্যমে ভ্রাম্যমাণ ট্রাকে ঢাকা মহানগরীতে ৩৫টি, চট্টগ্রাম মহানগরীতে ১০টি, অবশিষ্ট ৬টি বিভাগীয় শহরের প্রতিটিতে ৫টি করে ৩০টি এবং ৫৬টি জেলা শহরের প্রতিটিতে দুটি করে ১১২টি স্থানে এই পন্য বিক্রয় করা হবে।

সংসদে প্রশ্নোত্তরে বৃহস্পতিবার বেগম আদিবা আনজুম মিতার (সংরক্ষিত মহিলা আসন-৩৭) এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশী লিখিতভাবে এই তথ্য জানান। বিকালে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্ত্বে সংসদের বৈঠকের শুরুতে প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। বাণিজ মন্ত্রীর অনুপস্থিতিতে কৃষি মন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক তাঁর পক্ষে প্রশ্নের জবাব দেন। তিনি বলেন, আশা করছি রমজানে দ্রব্যমূল্য অস্বাভাবিক হবে না।

বানিজ্যমন্ত্রী আরো জানান, বাণিজ্য মন্ত্রনালয়ের কর্মকর্তাদের নেতৃত্বে প্রতিদিন ২টি করে মোট ১৪টি টিম ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন বাজারে মূল্য পরিস্থিতি পর্যবেক্ষনের কাজে নিয়োজিত রয়েছে।
তিনি জানান, জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তর কর্তৃক ঢাকাসহ সকল মহানগর, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বাজার মনিটরিং ও মোবাইল কোর্ট সারাদেশে ৩০০ এর অধিক বাজার পরিদর্শনমূলক অভিযান পরিচালনা করছে।

দেশে চাহিদার চেয়ে বেশি খাদ্য উৎপাদন হয়: বেনজির আহমদের (ঢাকা-২০) এক প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার জানান, দেশে বর্তমানে চাহিদার চেয়ে বেশি খাদ্যশস্য উৎপাদন হয় বিধায় খাদ্যের কোন ঘাটতি নেই। তিনি জানান, বর্তমানে দেশে ১৬.৫০কোটি জনসংখ্যার জন্য প্রতিদিন প্রতিজনের ৫০৯ গ্রাম হিসেবে বছরে ৩০৬.৫৫ লখ মেট্টিক ট্রন খাদ্যশস্যের চাহিদা রয়েছে। গত ২০১৭-১ অর্থবছরে নীট উৎপাদন হয়েছে ৩১৯.২৬ লাখ মেট্রিক টন চাল ও ৯.৩৪ লাখ মেট্রিক টন গম।

ধান ২৬ ও চাল ২৬ টাকা কেজি ধরে সংগ্রহ শুরু :বেনজির আহমের অপর এক প্রশ্নের জবাবে খাদ্য মন্ত্রী বলেন,খাদ্য পরিকল্পনা ও পরিধারণ কমিটির সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আসন্ন বোরো সংগ্রহ-২০১৯ মৌসুমে কৃষকদের নিকট থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন ধান ও চালকল মালিকদের নিকট থেকে ১০ লাখ মেট্রিক টন সিদ্ধ চাল ও ১ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিক টন আতপ চাল সংগ্রহ করা হবে। প্রতিকেজি ধানের সংগ্রহমূল্য ২৬টাকা, সিদ্ধচালের প্রতিকেজি সংগ্রহ মূল্য ৩৬ টাকা এবং আতপ চালের সংগ্রহমূল্য প্রতিকেজি ৩৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ২৫এপ্রিল ২০১৯ থেকে এই সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু হওয়ার তারিখত নির্ধারিত আছে ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত