প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শেরপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের গুলিতে নিহত-১

তপু সরকার হারুন : শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে এক ইউপি চেয়ারম্যানের গুলিতে প্রকাশ্যে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছে ইদ্রিস আলী (২৫) নামে এক কৃষক। গেল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনী দ্বন্দ্বের রেশ ধরে ধান কাটা নিয়ে বিরোধ করে আজ ২৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার যোগানিয়া কুত্তামারা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসী জানায়, গত ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীর সমর্থক ও যোগানিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হবি’র সাথে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোকছেদুর রহমান লেবুর সমর্থক একই এলাকার মোক্তার আলী ও সোহরাব আলীদের বিরোধ চলছিল। ওই বিরোধকে কেন্দ্র করে এর আগে হামলা ও মারধরের ঘটনাও ঘটে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে দশজন ধানকাটা শ্রমিকসহ সোহরাব আলী ইউপি চেয়ারম্যান এর ভাতিঝি জামাই মাজব আলীর বাড়ির নিকটে থাকা আড়াই একর জমির ধান কাটতে যায়। এসময় পূর্ব বিরোধের জেরে মাজব আলী তার লোকজনসহ সোহরাব আলীর উপর হামলা করে ও ধান কাটতে বাধা দেয়। বাধা পেয়ে সোহরাব আলী শ্রমিকদের নিয়ে বাড়ি চলে আসে এবং আশপাশের স্বজনদের খবর দেয়। পরে সকলে মিলে পুনরায় ধান কাটতে গেলে সংবাদ পেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান দেশীয় অস্ত্র ও লোকজন সাথে নিয়ে সোহরাব আলীদের ধাওয়া করে। একপর্যায়ে সোহরাব আলী ও তার ভাইদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে অস্ত্রশস্ত্রসহ হুমকী দিতে থাকে চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান। এসময় উভয়পক্ষে ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু হলে চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান তার সাথে থাকা অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র বের করে গুলি করে। এতে সোহরাব আলীর চাচাতো ভাই ইদ্রিস আলী গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

পরে স্বজনেরা উদ্ধার করে দ্রুত নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত