প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১০৫ মিলিয়নে ওল্ড ট্যাফোর্ডে এসেও সুখী নন পগবা

স্পোর্টস ডেস্ক : পল পগবা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়ছেন প্রায় নিশ্চিতই বলা যায়। এভারটনের বিপক্ষে ৪-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারের পরপরই ম্যানচেস্টার ডার্বিতে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে ২-০ গোলের পরাজয়। রেড ডেভিলসদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার সুযোগ পড়েছে হুমকির মুখে। সিটির বিপক্ষে হারের পর সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন পগবা।

এদিকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড লিজেন্ড গ্যারি নেভিল জানিয়েছেন, পগবা ইউনাইটেডে আর সুখী নন।

২০১৬ সালের আগস্টে ১০৫ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে রেকর্ড গড়ে হোসে মরিনহো পগবাকে নিয়ে যান ওল্ড ট্রাফোর্ডে। প্রথম মৌসুমটা ভালো কাটলেও পরেরবার থেকেই কোচ মরিনহোর সাথে দ্বন্দ্ব শুরু হয় পগবার। একপর্যায়ে এমন হয় যে, গুরু-শিষ্যের একসাথে ওল্ড ট্রাফোর্ডে থাকা অসম্ভব হয়ে ওঠে। সেই দ্বন্দ্ব থেকেই স্বয়ং কোচ মরিনহোকেও ম্যানচেস্টার ছাড়তে হয়।

নতুন কোচ সুলাশারের অধীনে সুযোগ পেয়ে দারুণ খেলেন পগবা। সুলাশারও একাধিকবার উচ্চপ্রশংসা করেন এই বিশ্বকাপ জয়ীর।

তবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে দলের খারাপ পারফরম্যান্সের কারণে দল ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কোচ। পল পগবাও আর থাকতে চান না ওল্ড ট্রাফোর্ডে।

এদিকে, রিয়াল মাদ্রিদের ফরাসি কোচ তার স্বদেশি পগবার জন্য অপেক্ষায় আছেন। জিদান এর আগের দফায় মাদ্রিদের কোচ থাকাকালীন সময়ে ২০১৬ তে পগবাকে বার্নাব্যুতে নিয়ে আসতে চেয়েছিলেন, কিন্তু এজেন্ট মিনো রাইয়োলার সাথে ক্লাবের খারাপ সম্পর্কের কারণে নিয়ে আসা যায়নি। সে সময় ১০৫ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে হোসে মরিনহো পগবাকে নিয়ে যান ওল্ড ট্রাফোর্ডে।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাথে এখনও দুই বছরের চুক্তির মেয়াদ আছে পগবার। এ অবস্থায় রিয়াল মাদ্রিদ বা ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেন্ট জার্মেইন নতুন ঠিকানা হতে পারে ফরাসি এই তারকার। দুটি ক্লাবই পগবাকে ধারে খেলাতে আগ্রহী। এর আগে পুরনো ক্লাব জুভেন্টাসে ফিরে যাওয়ার গুঞ্জন শোনা গেলেও জুভেন্টাসের আগ্রহ এখন আর দেখা যাচ্ছে না।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ৩৫ ম্যাচ খেলে ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় ৬ নম্বরে আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। তাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার সুযোগ অনেকটাই মলিন হয়ে আছে দলটির।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত