প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মাতাল হয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা, আটক ৪

এম এ হালিম,সাভার : সাভারে মদ খেয়ে মাতলামির এক পর্যায়ে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে নাইম হাসান নামে এক ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার সকালে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নাইমের মৃত্যু হয়।

এর আগে মঙ্গলবার রাতে সাভার দক্ষিণ রাজাশন এলাকার সার্ড স্কুলের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে। নিহত নাইম দক্ষিণ রাজাশন এলাকার মনির হোসেনের ছেলে। সে এবার সাভার ট্রাস্ট কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিলেন।

থানা পুলিশ ও নিহতের পরিবার সুুত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাতে দক্ষিন রাজাশন এলাকায় মদ খাওয়াকে কেন্দ্র করে শাকিল গ্রুপ ও মিলন গ্রুপের মধ্যে বাকবিতন্ডার ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে মাতাল অবস্থায় দুই গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে মিলন গ্রুপের সদস্য নাইম হাসান গুরুতর আহত হয়।

এ সময় তাকে উদ্ধার করে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করা হয়। পরে বুধবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় নাইম। এঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় হৃদয় নামে আরও একজনকে এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।খবর পেয়ে সাভার মডেল থানা পুলিশ নিহতের মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

হত্যার ঘটনায় নিহতের বাবা মনির হোসেন বাদি হয়ে সাভার মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে চার জনকে আটক করেছে।সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোফাজ্জল হোসেন বলেন, মদ খাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ছুড়িকাঘাতে নাইমের মৃত্যু হয়েছে। এঘটনায় নাইমের বাবা লিখিত অভিযোগ দিলে মিলন (২০),শাকিল (২২) ও হৃদয়সহ (২১) চার জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত