প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফের অবৈধ দখলদারীদের হাতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক

আফজাল হোসেন : ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুর অংশে ফের অবৈধ দলখদারীদের দৌরাত্ম শুরু হয়েছে। বেশ কিছুদিন আগে গাজীপুর জেলা পুলিশের উদ্যোগে মহাসড়ক ও ফুটপাত দখলমুক্ত হলেও মিলেনি এর সুফল।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, জয়দেবপুর থেকে ময়মনসিংহ মহাসড়কের দৈর্ঘ্য ৬০ কিলোমিটার। এর মধ্যে গাজীপুর অংশে রয়েছে ৩০ কিলোমিটার। মহাসড়কের গুরুত্ববিবেচনা করে বর্তমান সরকার বিগত ২০১৬ সালে জনদুর্ভোগ লাগবে সড়কটিকে চার লেনে উন্নীত করেন। কিন্তু শিল্প এলাকা সমৃদ্ধ গাজীপুরে জনসংখ্যার আধিক্য থাকায় স্থানীয়দের উদ্যোগে গত কয়েকবছর ধরেই মহাসড়কের জৈনা বাজার, নয়নপুর বাজার, এমসি বাজার ও মাওনা চৌরাস্তা, গড়গড়িয়া মাষ্টারবাড়ি, ভবানীপুর, বাঘেরবাজার সড়কের দুপাশ দখল করে বাজার বসছে।

এতে চার লেনের সুফল বঞ্চিত হয়ে জনদুর্ভোগ প্রতিনিয়তই বাড়ছে। এছাড়াও স্থানীয় বাজারের ফুটপাতগুলোও অবৈধ দখলে থাকায় বাড়ছে পথচারীদের দুর্ভোগও।

তেলিহাটি গ্রামের স্কুল শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমানের ভাষ্য,জৈনা বাজারে প্রতিদিন সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত মহাসড়কের দুপাশ দখল করে বাজার বসান স্থানীয় ইজারাদার।

মাওনা চৌরাস্তার বনিক সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব আশরাফুল ইসলাম রতন জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে গ্রীণ ও ক্লিন গাজীপুরের একটি প্রতিশ্রæতি আমাদের দেয়া হয়েছিল। আমরা সে সময় আশায় বুকও বেধে ছিলাম। কিন্তু এর ফল এখনও আমরা পাইনি। সড়কের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে পুনরায় উদ্যোগ নিলে সাধারণ মানুষ অনেকটা নিরাপত্তা খুঁজে পাবে সাথে কমবে জনদুর্ভোগও।

জৈনা বাজারের ইজারাদার আবুল হাসেম জানান, আমাদের এসব বাজার অবৈধ তা বলা যাবে না কারন আমরা সরকার থেকে বাজার এক বছর মেয়াদী ইজারা নিয়েছি।

এ বিষয়ে গাজীপুর হাইওয়ে পুলিশ সুপার শফিকুল ইসলাম জানান,মহাসড়কের উপর বাজার নিরাপত্তার সাথে দুর্ভোগ সৃষ্টিরও একটা কারন। আমরা কয়েকবার এসব বাজার সরিয়ে নিতে ইজারাদারদের নোটিশ দিয়েছি। স্থানীয় প্রশাসন এসব বাজার ইজারা দেয়ার কারনে ইজারাদাররা ইজারার বিষয়টি বারবার সামনে নিয়ে আসেন। তবে হাইওয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে মহাসড়কের উপর বাজারগুলোর ইজারা বাতিলের জন্য সংশ্লিষ্ট দফতরে ইতিমধ্যেই আবেদন জানানো হয়েছে।

মহাসড়কের উপর এবং ফুটপাতে কোন ধরনের বাজার বা অবৈধ স্থাপনা থাকতে পারবে না বলে জানিয়েছেন গাজীপুরের পুলিশ সুপার(এসপি) শামসুন্নাহার। তিনি আরো জানান, মহাসড়ক নিরাপদ করতে আবারও জেলা পুলিশ উদ্যোগ গ্রহন করবে। খুব দ্রুতই মহাসড়ক দখলমুক্ত করা হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত