প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমগুলোর কারণে ছড়িয়ে পড়ছে মনগড়া সহিংসতা

মুসবা তিন্নি : শ্রীলংকায় বোমা হামলা হওয়ার কিছুক্ষণ পর থেকেই সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া শুরু করে হামলা সম্পর্কিত বিভিন্ন মনগড়া গল্প – আর সেই পরিপ্রেক্ষিতে দ্রæত সামাজিক মাধ্যম বন্ধ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় দেশটির সরকার।
‘ভুয়া খবর’ ছড়িয়ে পড়া বন্ধ করতে ফেসবুক, ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপ আর ইনস্টাগ্রাম, এবং ইউটিউব, ভাইবার ও স্ন্যাপচ্যাট বন্ধ করে দেয়া হয়।
সামাজিক মাধ্যমের ওপর থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কবে বা কখন উঠিয়ে নেয়া হবে সেবিষয়ে কোনো বক্তব্য দেয়নি শ্রীলংকার সরকার – বিবিসি বাংলা

রোববার শ্রীলংকার একাধিক গির্জায় এবং হোটেলে সিরিজ বোমা হামলা হওয়ার পর দেশটির প্রধানমন্ত্রী রানিল বিক্রমাসিংহে জনগণকে আহবান জানিয়েছিলেন ‘ভিত্তিহীন খবর প্রচার থেকে বিরত’ থাকতে। এর পরপরই সামাজিক মাধ্যমের সাইটগুলো বন্ধ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
শ্রীলংকায় হোয়াটসঅ্যাপের ব্যবহার ব্যাপক

দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে এই নিষেধাজ্ঞা সাময়িক, তবে ‘তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত’ এটি কার্যকর থাকবে। সামাজিক মাধ্যমে টুইটার এই নিষেধাজ্ঞার আওতাধীন নয়। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শ্রীলংকার মানুষের মধ্যে টুইটার তেমন জনপ্রিয় নয়।

গতবছর মুসলিম বিরোধী সহিংসতা উস্কে দেওয়ার অভিযোগে কিছুদিনের জন্য ফেসবুক বন্ধ ছিল শ্রীলংকায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত