প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আইএস তাদের অবস্থান জানান দিতেই শ্রীলঙ্কায় হামলা চালাতে পারে, বললেন মোহাম্মদ আলী শিকদার

জুয়েল খান : আইএস এখন মধ্যপ্রাচ্যে বিশেষ করে ইরাক এবং সিরিয়া থেকে প্রায় উৎখাত হয়ে গেছে। সুতরাং বিশ্ববাসী মনে করছে আইএস নিশ্চিহ্ন হয়ে যাচ্ছে, এই ধারণা থেকে বেরিয়ে আসতে এবং নিজেদের অবস্থান জানান দিতে আইএস এই হামলা করেছে। আইএস সারাবিশ্বকে দেখাতে চাইছে যে, আমরা এখনও শেষ হয়ে যাইনি এবং যেকোনো সময় যেকোনো দেশে হামলা করার মতো সক্ষমতা আমাদের আছে এমনটা মনে করেন নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর জেনারেল (অব.) মোহাম্মদ আলী শিকদার।

তিনি বলেন, শ্রীলঙ্কার এই জঙ্গি হামলা একটি পরিকল্পিত হত্যাকা-। জঙ্গি হামলার এই বিষয়টা এখন এমন একটা জায়গাতে দাঁড়িয়েছে যে, এখানে শুধু শ্রীলঙ্কা আক্রান্ত হয়েছে বিষয়টা এমন নয়, সারাবিশ্ব এই জঙ্গিদের দ্বারা আক্রান্ত। এরা যেকোনো সময় যেকোনো জায়গায় আক্রমণ চালাতে পারে। এখন পর্যন্ত যেসব তথ্য-উপাত্ত পাওয়া গেছে তাতে দেখা যায় বেশিরভাগ বিশ্বশক্তি সন্দেহের আঙ্গুল তুলছে জঙ্গি সংগঠন আইএসের দিকে। আইএসের গির্জায় আক্রমণের পূর্বের অভিজ্ঞতা রয়েছে, এরা আগে ইন্দোনেশিয়ার গির্জায় হামলা চালিয়েছিলো, মিশরেও আক্রমণ চালিয়েছে। মাসখানেক আগে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে জঙ্গি হামলায় মুসলমান সম্প্রদায়ের অনেক মানুষ প্রাণ হারায়।

এই হামলার প্রতিশোধ এবং পাল্টা আক্রমণ হিসেবে শ্রীলঙ্কায় খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের চার্চে প্রার্থনারত অবস্থায় এই হামল চালানো হয়ে থাকতে পারে। তাই এখন সন্দেহের আঙ্গুলটা আইএসের দিকেই যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, এ ধরনের জঙ্গি হামলায় অবশ্যই আতঙ্কিত হওয়ার বিষয়। কারণ কখন কোন দেশে হামলা হয় সেটা বলা মুশকিল। তাই জঙ্গি হামলা রোধে বিশ্ববাসীকে সতর্ক থাকতে হবে। জঙ্গিবাদ এবং সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধে বিশ্বব্যাপী সচেতনতা এবং সংগঠিত হতে হবে এবং সেসময় এখনই। কারণ এখন যদি এদের প্রতিরোধ করা না যায় তাহলে সারাবিশ্ব জঙ্গিবাদে আক্রান্ত হবে। জলবায়ু মোকাবেলায় বিশ্ববাসী যেমন একমত হয়ে সংগঠন এবং অর্থ সহায়তা দিচ্ছে তেমনি জঙ্গি প্রতিরোধে এ রকম সংগঠন, সচেতনতা এবং অর্থ সহায়তা দিতে হবে যাতে জঙ্গি দমনের উদ্যোগ আরো শক্তিশালী হয়।
বাংলাদেশে জঙ্গি হামলার তেমন কোনো ঝুঁকি নেই, কারণ সরকার এবং আইন প্রয়োগকারী সংস্থা সতর্ক রয়েছে। এ ব্যাপারে তাদের দক্ষতাও বেড়েছে। তবে এই আত্মতুষ্টিতে ভুগলে চলবে না, সরকার এবং আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে আরো বেশি দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত