প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি তৈরি, নেতা নির্বাচনে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ

হ্যাপি আক্তার : ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে আওয়ামী লীগের চার নেতাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। কাউন্সিলের এক বছরেও সভাপতি সাধারণ সম্পাদক মিলে কমিটি করতে না পারায় আওয়ামী লীগ সভাপতি চার নেতাকে এই দায়িত্ব দিয়েছেন। দায়িত্বপ্রাপ্তরা জানিয়েছেন, সংগঠনের বর্তমান ও বিদায়ী দুই নেতাকে কমিটি প্রস্তাব করতে বলা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরলেই তা ঘোষণা করা হবে। ডিবিসি নিউজ

গেলো বছরের ১১ ও ১২ মে ছাত্রলীগের জাতীয় সম্মেলনের পর পেরিয়ে গেছে ১১ মাস। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করে তাদের দায়িত্ব দেয়া হয় পুরো কমিটি করার। কিন্তু তা করে ওঠতে পারেননি তারা।

এ নিয়ে পদ প্রত্যাশীদের ক্ষোভের পাশপাশি সংগঠনের কর্মকাণ্ড ঝিমিয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ ওঠেছে। নানা আলোচনার পর পুরো কমিটি করতে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আওয়ামী লীগের ৪ নেতাকে। নতুন কমিটি ঘিরে যেন কোনো বির্তক না হয় সেজন্য নেতা নির্বাচন করতে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ।

দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেন, একটা পূর্ণাঙ্গ কমিটির হওয়ার মধ্যেই সংগঠনের সফলতা, গতিশীলতা নির্ভর করে, বিষয়টা ঠিক এমন না। তাদের জিনিস তারাই করবে। কারা ভবিষ্যতে সংগঠন করতে পারবে, কাদের কি যোগ্যতা আছে, এইসব কিছু বিবেচনায় নিয়েই তারা সুন্দর একটা কমিটি করে তারা যাত্রা শুরু করবে। এটাই আমরা আশা করছি।

আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক জনান, ৭ দিন সময় বেঁধে দিয়েছেন কমিটি করার জন্য। কমিটি করার ব্যাপারে আমরা প্রায় চূড়ান্ত পর্যায়ে চলে এসেছি। কারা যথাযথ আদর্শ ধারণ করে দীর্ঘমেয়াদী রাজনীতি করবে। ছাত্রলীগের আদর্শবান কর্মী খোঁজা হচ্ছে। কোনোভাবেই যেন ছাত্রলীগের ভিতর অন্য কেউ জড়িয়ে পড়তে না পারে বিশেষ করে নৈরাজ্যতে যারা বিশ্বাস করে এমন কাউকে ছাত্রলীগে জায়গা দেয়া হবে না।

পর পর চারটি কমিটির সভাপতি সাধারণ সম্পাদক ভোটে নির্বাচিত হন। আর বর্তমান সভাপতি রেজুয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানীকে মনোনীত করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। সম্পাদনা : জামাল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত