প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভোলার বোরহানউদ্দিন থানায় ছাত্রলীগের হামলায় ওসিসহ আহত ৬, গ্রেফতার ৭

মো. আল-আমিন : ভোলায় ছাত্রলীগ নেতা জেহাদ হোসেনের কাগজপত্রবিহীন মোটরসাইকেল আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় ছাত্রলীগকর্মীরা ক্ষুদ্ধ হয়ে থানায় হামলা চালিয়েছে। এ সময় থানার গেট ভাঙচুর করা হয়। হামলায় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অসীম কুমার সিকদারসহ ছয় পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে সাতজনকে গ্রেপ্তার করেছে। (এন টিভি)

পুলিশ জানায়, সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে বোরহানউদ্দিনের আবদুল জব্বার কলেজ ছাত্রলীগের নেতা জেহাদ হোসেনের কাগজপত্র বিহীন মোটরসাইকেল আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। প্রতিবাদে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে জেহাদের নেতৃত্বে শতাধিক ছাত্রলীগের নেতাকর্মী থানায় হামলা চালায়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে থেমে থেমে সংঘর্ষ চলে। পুরো এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। আতঙ্কিত হয়ে পড়ে বাজারের লোকজন। বন্ধ হয়ে যায় দোকানপাট।

এ ঘটনায় বোরহানউদ্দিন থানার ওসি অসীম কুমার সিকদার, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আসাদসহ ছয়জন পুলিশ সদস্য আহত হন। আহতদের মধ্যে দুজনকে বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে এবং ঘটনাস্থল থেকে অন্তত ২৫ জনকে আটক করে। কিন্তু হামলার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা দেখিয়ে সোমবার বিকেলে সাতজনকে আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।

হামলার ব্যাপারে ছাত্রলীগ নেতা জেহাদ হোসেনের বক্তব্য পাওয়া না গেলেও বোরহানউদ্দিন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম বলেন, হামলাকারীরা ছাত্রলীগের হলেও তাদের দৃষ্টান্তম‚লক শাস্তির দরকার আছে। তারা থানায় হামলার সাহস পায় কোথা থেকে। এটা নিন্দনীয় ঘটনা, মেনে নেওয়া যায় না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত