প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বেরিয়ে আসছে সোনাগাজী থানার ওসি মোয়াজ্জেমের নানা অপকর্ম

ইসমাঈল ইমু : সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও মাদকসেবীদের সঙ্গে সখ্য এবং নিরীহ মানুষকে অকারণে হেনস্তা করে টাকা হাতিয়ে নেয়া ছিলো সোনাগাজী থানার ওসি মোয়াজ্জেমের নিত্যদিনের কারবার। মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নুশরাত হত্যার ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার অভিযোগ উঠার পর থেকে তার বিরুদ্ধে বেরিয়ে আসছে এরকম নানা অভিযোগ। স্থানীয় বাসিন্দারা এখন তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে শুরু করেছেন।

উপজেলার চরচান্দিয়া ইউনিয়নের সাবেক সদস্য নুরনবীর অভিযোগ, গত বছরের জানুয়ারিতে পারিবারিক সমস্যা কেন্দ্র করে তার কাছে থেকে ১ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন ওসি মোয়াজ্জেম। এ ঘটনায় মোয়াজ্জেম আরো টাকা দাবি করলে তা দিতে অপারগতায় এলাকা ছাড়তে বাধ্য করা হয় তাকে।

দৌলতকান্দি গ্রামের মাদ্রাসা শিক্ষক আব্দুল আজিজের অভিযোগ, তাকে থানায় ১২ দিন আটকে রেখে ৯ লাখ টাকা আদায় করেন মোয়াজ্জেম। একইভাবে গতবছর অক্টোবরে পারিবারিক সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জেরে পৌর এলাকার কলেজছাত্র আবু সাইদ রনিকে ৮ ঘণ্টা থানায় আটকে রেখে আদায় করেন ২ লাখ টাকা। মাদক মামলায় তাকে ফাঁসিয়ে দেয়ারও হুমকি দেন ওসি মোয়াজ্জেম। এসব ঘটনায় সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবিতে সোচ্চার ভুক্তভোগীরাও শরিক হচ্ছেন মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচিতে। অভিযোগ রয়েছে সোনাগাজীর পরিবহন ব্যবসা, বালু মহাল দখলসহ বিভিন্ন অপকর্মে নিয়মিত ভাগ নিতেন ওসি মোয়াজ্জেম। এসব অভিযোগ খতিয়ে দেখার কথা জানিয়েছে পিবিআই। নুসরাত হত্যার পর দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে ওসি মোয়াজ্জেমকে সোনাগাজী থানা থেকে প্রত্যাহার করা হয়। এর আগে ফেনী সদর ও ছাগলনাইয়ায় দায়িত্ব পালন করে মোয়াজ্জেম।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত