প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সংখ্যাগুরুদের হাতে নির্যাতিত হওয়ার জেরে শ্রীলঙ্কার হামলা হতে পারে, বললেন সৈয়দ মাহমুদ আলী

কেএম নাহিদ : নিরাপত্তা বিশ্লেষক এবং মালয় ইউনিভারসিটি এসোসিয়েট ফেলো ড. সৈয়দ মাহমুদ আলী বলেন, শ্রীলঙ্কায় দীর্ঘ দিন ধরে সংখ্যালঘু মুসলিম, হিন্দু, খ্রিষ্টানরা সংখ্যাগুরুদের হাতে নির্যাতিত হচ্ছে। এটা তারই ক্ষেভের বহিঃপ্রকাশ কিনা সেটা বলা যায় না। তবে অস্থিরতা কাটিয়ে শ্রীলঙ্কা আস্তে আস্তে গণতান্ত্রিক পথে যাচ্ছিলো তা থেমে যাবে। প্রচণ্ড ধরপাকর শুরু হবে। জনগণের অধিকার ক্ষুন্ন হতে পারে। নিরাপত্তা বিধানই এখন মুখ্য বিষয় হয়ে উঠবে বলে মনে করেন এই নিরাপত্তা বিশ্লেষক। সোমবার বিবিসির সাথে এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা তিনি ।

তিনি বলেন, আশির দশকে তামিল টাইগার প্রথম আত্মঘাতি বোমা হামলা করে। সাম্প্রতিক সময়ে কিছু মুসলিম জঙ্গিগোষ্ঠিও আত্মঘাতি হামলা করে। শ্রীলঙ্কার শান্তি স্থাপনে বিঘ্ন ঘটাতেই এই হামলা। যারাই এই হামলা করেছে অনেক দিন থেকেই তারা এর পরিকল্পনা করে আসছে এবং অনেক অর্থ খরচ করেছে।

তিনি বলেন, একটি অস্থিতিশীল অবস্থা থেকে ধীরে ধীরে গণতান্ত্রিক দেশের শ্রীলঙ্কা যাত্রা রোধ হলো। এখন দেশের শান্তি শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা বর্তমান সরকারে প্রধান কাজ হবে। এতে সাধারণ মানুষ ভোগান্তির শিকার হতে পারে। সরকারের প্রধান কাজ হবে দেশের অস্থিরতা কাটিয়ে মানুষকে ভয় থেকে মুক্ত করা। এটাই এখন চ্যালেঞ্জ। যারা হামলা করেছে তারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে এবং সামাজিক অবকাঠামোর ভঙুর পরিস্থিতি করতে চায় বলেই এই হামলা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত