প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শ্রীলঙ্কায় হামলার ভিডিও ভাইরাল

নিউজ ডেস্ক: শ্রীলঙ্কায় ইস্টার সানডের প্রার্থনার সময় তিনটি গির্জা ও পাঁচ তারকা তিনটি হোটেলে সিরিজ বোমা হামলায় ৩৫ বিদেশিসহ অন্তত ২০৭ জন নিহত ও ৪ শতাধিক আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় সাত সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে।

গীর্জায় উপস্থিত খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষরা যখন প্রার্থনায় মত্ত ছিলেন ঠিক সেই সময় বোমা বিস্ফোরণ হয়। মুহূর্তের মধ্যে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় গীর্জা। কলম্বোর সেন্ট অ্যান্থনি গীর্জায় বিস্ফোরণের মুহূর্তের একটি ভিডিও ধরা পড়েছে স্থানীয় এক গাড়ি চালকের মোবাইল ফোনে।

৪ মিনিট ২৫ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, ব্যস্ত সড়কের বুক চিড়ে এগিয়ে চলছে অটোরিকশা, বাস, ট্রাক। এর মাঝেই হঠাৎ প্রবল বিস্ফোরণের শব্দে উড়ে যায় অ্যান্থনি গীর্জার ছাদ। আকাশে উড়তে থাকে ধোঁয়া।

এসময় পথচারী ও গীর্জার সামনের থাকা লোকজন দিগ্বিদিক ছোটাছুটি শুরু করেন। অনেকেই রাস্তা থেকে গাড়ি ঘুরিয়ে ফেরত যান।

এখনও পর্যন্ত কমপক্ষে আটটি বিস্ফোরণের খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছে।

সিরিজ বোমা হামলার এ ঘটনায় বাংলাদেশের সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের নাতি জায়ান চৌধুরী (৮) মারা গেছে। রোববার (২১ এপ্রিল) রাতে তার পরিবারের পক্ষ থেকে সময় সংবাদকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে ব্রুনেই সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছিলেন, শ্রীলঙ্কায় বোমা বিস্ফোরণে শেখ সেলিমের জামাতা মশিউল হক চৌধুরী প্রিন্স আহত হয়েছেন এবং নাতি জায়ান চৌধুরী নিখোঁজ হয়েছে।

শেখ সেলিমের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, এরই মধ্যে পরিবারের সদস্যরা কলম্বোর উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছেন।

এদিকে বিবিসি ও আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় মোট সাত সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে। শ্রীলঙ্কান সরকার নিশ্চিত করেছে অধিকাংশ বিস্ফোরণই ছিল আত্মঘাতী হামলা এবং একটি গোষ্ঠীই হামলাগুলো চালিয়েছে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী রোয়ান ইজেয়ারদেন ঘটনার বর্ণনা দিয়ে এটিকে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে উল্লেখ করেছেন। আর এর পেছনে কোনো ধর্মীয় সন্ত্রাসী গোষ্ঠী রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত