প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহকে নিয়ে আবেগ ঘন ফেসবুক স্ট্যাটাস মাসুদা ভাট্টির

ফেসবুক থেকে: এই ক’দিন আগেই জেনেছি আপনি অসুস্থ। আজ চলে গেলেন মাহফুজ উল্লাহ্ ভাই। আপনাকে পছন্দ করতাম আপনার চমৎকার বাচনভঙ্গী আর সমৃদ্ধ জ্ঞানভাণ্ডারের জন্য। বিস্মিত হতাম আপনার রাজনৈতিক অবস্থান পছন্দের জন্য। তারপরও কত কথা হতো, ফোনে কিংবা দেখা হলে। আপনি আমাকে পছন্দ করতেন আমার দৃঢ় অবস্থানের কারণে। তর্ক হতো, মত-পার্থক্য হতো মত-বিরোধ হতো না, কখনও ব্যক্তি-আক্রমণ করিনি বা করেননি। কেন চলে গেলেন মাহফুজ উল্লাহ্ ভাই? আপনি নিজের সময়টা বিশ্লেষণ করেননি কিন্তু আপনার সময়ের শাসক জিয়াউর রহমানের জীবনী লিখেছেন— কিন্তু আমি অনেকবার বলেছি আমি আপনার সময়টা জানতে চাই মাহফুজ উল্লাহ্ ভাই, আপনি বলেছেন লিখবেন, আপনার দ্যাখা রাজনীতি নিয়ে লিখবেন।

জানি না কতটুকু কি লিখেছেন, আমার জানার বিষয়টা ছিল কেন আপনার মত একজন মানুষের রাজনৈতিক বিশ্বাস আমার চেয়ে ভিন্ন হলো? আমি কিন্তু আপনাকে আমারই মত বিশ্বনাগরিক ভেবেছি, আপনি সেরকমটাই ছিলেন। আমার মন খারাপ হলো খুউব, আপনার চলে যাওয়ায়। সেদিনই আমাদের নতুন সময় পত্রিকার সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খানের সঙ্গে আলোচনায় আমরা কথা বলছিলাম কেন একে একে আপনাদের মত বিজ্ঞজনেরা চলে যাচ্ছেন, আমরা এরকমটাও ভাবছিলাম যে, রাজনীতির মানুষেরা রাজনীতি থেকে দূরে গেলে অসুস্থ হয়ে পড়েন কখনও কখনও। আপনিও সেরকম হলেন কিনা বলতে পারবো না, কিন্তু যেখানেই যাচ্ছেন ভালো থাকুন, খুউব ভালো মাহফুজ উল্লাহ্ ভাই। আমার ভালোবাসা সব সময় আপনার জন্য থাকবে।

বিশিষ্ট সাংবাদিক ও লেখক মাহফুজ উল্লাহ রোববার (২১ এপ্রিল) ব্যাংককের একটি হাসপাতালে মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৯ বছর।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ের গণমাধ্যম শাখার কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার। তিনি বলেছেন, সাংবাদিক, কলামিস্ট মাহফুজ উল্লাহ আজ আমাদের মাঝ থেকে চিরতরে বিদায় নিয়েছেন।

গত ১০ এপ্রিল বুধবার রাত ১১টা ৫২ মি‌নি‌টে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় মাহফুজ উল্লাহকে উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ব্যাংককে নেওয়া হ‌য়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত