প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কুড়িগ্রামে ১২ জন চিকিৎিসক দিয়ে চলছে ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতাল, কাঙ্খিত সেবা বঞ্চিত রোগীরা

সৌরভ কুমার ঘোষ, কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে তীব্র জনবল সঙ্কটে কাঙ্খিত স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছেন না রোগীরা। ১শ শয্যার অপার্যাপ্ত জনবল কাঠামো দিয়ে ২শ ৫০ শয্যার হাসপাতাল পরিচালনা করতে গিয়ে  হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, প্রথমে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালটি ৫০ শয্যার ছিল। পরবর্তীতে হাসপাতালটিকে ১শ শয্যায় উন্নীত করা হয়। সর্বশেষ হাসপাতালটিকে ২৫০ শয্যার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু দুঃখজনক বিষয় হচ্ছে, হাসপাতালটিতে শয্যার সংখ্যা বাড়লেও জনবল বাড়ানো হয়নি।

সূত্র মতে, ১শ শয্যা হাসপাতালের মঞ্জুরিকৃত জনবল কাঠামো অনুযায়ী ৪২ জন চিকিৎসকের স্থলে চিকিৎসক আছেন মাত্র ১২ জন। দ্বিতীয় শ্রেণীর ১৬৮টি পদের বিপরীতে কর্মরত আছে ১৫৫ জন। তৃতীয় শ্রেণীর ২৮টি পদের বিপরীতে কর্মরত আছে ১০ জন। চতুর্থ শ্রেণীর ২৮টি পদের বিপরীতে কর্মরত আছে ১০ জন।

কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্বাবধায়ক ডা. অমিত কুমার বসু জানিয়েছেন, ১শ শয্যার জনবল দিয়ে ২৫০ শয্যার হাসপাতাল পরিচালনা করা রীতিমতো অসম্ভব হয়ে পড়েছে। সেই ১শ শয্যার জনবলের মধ্যেও চিকিৎসক, নার্সসহ ৭৮টি পদ দীর্ঘদিন ধরে শূন্য রয়েছে।

এব্যাপারে কুড়িগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. এসএম আমিনুল ইসলাম বলেন, আগামী ১০ দিনের মধ্যে চিকিৎসক সঙ্কট থাকবে না। এছাড়া আগামী ১মাসের মধ্যে তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী নিয়োগের দোদুল্যমান কার্যক্রমটি সমাপ্ত করা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত