প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ছবি বিক্রি করে এক টাকায় ‘টোকাই’ ও দুস্থদের খাবার দেয়ার দলটি

মৌরী সিদ্দিকা : রাফাত নূর চেষ্টা করছেন এক টাকার বিনিময়ে দেশের সুবিধাবঞ্চিত শিশু ও মানুষদের একবেলা খাবার দিতে। বললেন, ২০১২ সালের ঘটনা। আমরা কয়েক ব্লগার বন্ধু বিভিন্ন চায়ের দোকানে, টং দোকানে বসে গল্প করতাম, আড্ডা দিতাম যেখানে বস্তিবাসীরা থাকে। সেখানে বস্তিবাসীদের সঙ্গে আন্তরিকতা তৈরি হয়। তখন তাদের জীবনের বিভিন্ন গল্প চাওয়া, পাওয়া আমরা জানতে পারি। তাদের চাওয়া পাওয়ার মধ্যে প্রধান হচ্ছে খাদ্য। -বিবিসি

রাফাত বলেন, তখন আমি ভাবলাম যেহেতু ছোটবেলায় এস এম সুলতানের কাছে ছবি আঁকা শিখেছি। আমার আঁকা ছবি বিক্রি করার চেষ্টা করি এবং বিক্রি করতে সক্ষম হই। এভাবেই আমি চালিয়ে যাচ্ছিলাম। আমার আরও কিছু শিল্পী বন্ধু যখন দেখলো আমার আঁকা ছবি বিক্রি করে একটা ভালো কাজ করছি। এরপর ওরাও এগিয়ে আসে। আমাদের আর্ট করা ছবি, পেইন্টিং বিক্রি করে যে টাকা আসে সেই টাকা দিয়েই খাওয়ানোর খরচ বহন করি।

বিবিসিকে রাফাত নূর বলেন, যখন শুরু করেছিলাম তখন ১০ থেকে ১২ জন সুবিধাবঞ্চিত শিশুকে খাবার দিতে পারতাম। এখন আমরা ১১টি জেলার সুবিধাবঞ্চিত মানুষের খাওয়ানোর চেষ্টা করছি। ঢাকাতে বেশ কিছু স্কুল আছে, সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য। ঐ স্কুলগুলোতে আমরা খাবার দিয়ে থাকি। যাতে তারা শিশুশ্রমের দিকে ধাবিত না হয়ে স্কুলে নিয়মিত ক্লাস করে।

খাবারের অভাবে প্রতিদিন দরিদ্র মানুষদের যে মলিন মুখ দেখি এবং খাবার দেবার পর তাদের হাসিমুখ, আনন্দমুখ দেখি এটাই আমার প্রতিদিনের অর্জন। প্রতিদিনের একটা ভালো লাগা। যখন আমি রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাই অন্য কোনো কাজে তখন হঠাৎ করে তারা আমাকে পিছন থেকে জড়িয়ে ধরে। এটাও আমার খুব বড় একটা পাওয়া। আমার কাছে খুবই ভালো লাগে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত