প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্যাংকগুলোতে দক্ষ জনশক্তি নেই, বললেন ফারুক মঈনদ্দীন

মোহাম্মদ মাসুদ ও রুহুল আমিন : ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারুক মঈনদ্দীন বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতের দুর্বল ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে তিনি বলেন, ব্যাংকিং ইন্ড্রাসিতে গর্ভনেস বড় ধরনের ইস্যু। গর্ভনেস সম্পূর্ণভাবে নিশ্চিত করতে পারলে ব্যাংকিংয়ে অভিযোগগুলো অনেক ক্ষেত্রে কম হতো। তবে ইতিমধ্যে গর্ভানেস ইস্যুতে সর্বাধিক জোর দেয়া হচ্ছে। বিবিসি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে হঠাৎ করে অনেকগুলো ব্যাংক প্রতিষ্ঠা হয়েছে। স্বাধীনতার পরর্তীতে যে সব ব্যাংক ছিলো ক্রমান্বয়ে সেটা বাড়তে থাকে। বর্তমানে দেশে ব্যাংকের সংখ্যা প্রায় ৬০টি। সেক্ষেত্রে এতগুলো ব্যাংক বাজারে একসঙ্গে ব্যবসা পরিচালনার ক্ষেত্রে দক্ষ জনশক্তি বড় ইস্যু হয়ে দাড়ায়।

জনবল নিয়োগের ক্ষেত্রে সেটা অনুভব করা যায়। আমরা যখন সাক্ষাতকারে যাই লক্ষ্য করি, যে মানের কর্মকর্তা নিয়োগ করতে চাই সেটা পাওয়া দুষ্কর হয়ে পড়ে। একইসাথে এতোগুলো ব্যাংকের নির্বাহী নিয়োগের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট মানের দক্ষতা থাকতে হয়। সবসময় নির্দিষ্ট মানের দক্ষ প্রধান নির্বাহী পাওয়া যায় না। কিংবা অন্যান্য উচ্চ পদস্থ নির্র্বাহী যারা থাকেন যারা বিভিন্ন ব্যাংক পরিচালনা বা পলিসি তৈরি করবেন তাদেরও অভাব দেখা যায়। সেটা একটা বড় ইস্যু।

বাংলাদেশের বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো যে সুদে ঋণ দিচ্ছে সেটা অনেক বেশী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সুদের হার একসময় ধীরে ধীরে কমে আসছিলো সেখানে কারো কোনো নির্দেশ ছিলো না। যেহেতু এটা বাজার ভিত্তিক গতি বাজারই তার সুদকে টেনে নিচে নামিয়ে আনছিলো। বাজার যখন নির্ধারণ করবে সুদের হার কমে যাবে এটা কাউকে বলতে হবে না। কেউু যদি সুদের হার কমাতে বা বাড়াতে বলে, বাজার যদি একোমোডেট না করে তাহলে কারো পক্ষে সুদের হার কমানো বা বাড়ানো সম্ভব হয় না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত