প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আবেগ দিয়ে যুদ্ধ জয় করা যায় না নেতাকর্মীদের ফখরুল

শিমুল মাহমুদ : মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দলের চেয়ারপারসনের নির্দেশেই বিএনপি নির্বাচনে গেছে এবং নির্বাচনের পরেও তার নির্দেশেই ঐক্য ধরে রাখতে কাজ করছে দলটি।

রোববার বিকেলে বিএনপির সাবেক মহাসচিব কেএম ওবায়দুল হকের ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনষ্টিটিউটে এক স্মরণ সভায় তিনি এ কথা বলেন।
সভার আয়োজন করে ‘ওবায়দুল হক স্মৃতি সংসদ’।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের এক পর্যায়ে দর্শক সারি থেকে বিচ্ছিন্নভাবে প্রশ্ন করতে থাকেন নেতাকর্মীরা। এ সময় তিনি তাদের মঞ্চে এসে প্রশ্ন করতে বলেন। দর্শক সারি থেকে ঢাকা কলেজের সহ-সভাপতি এইচএম রাশেদ মঞ্চের কাছে এসে জানতে চান, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সর্বশেষ যে কমসূচি ঘোষণা করেছে তাতে খালেদা জিয়ার মুক্তি চাওয়া হয়নি কেন? জবাবে ফখরুল বলেন, কে বলেছে আপনাকে এই কথা। অবশ্যই মুক্তি চাওয়া হয়েছে। ডোন্ট টেল লাই। এ সময় উপস্থিত নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, নির্বাচনকে আমরা একটি হাতিয়ার হিসেবে বেছে নিয়েছিলাম আমাদের গণতন্ত্রের মাতা চেয়ারপারসন নির্দেশেই। আপনাদের নিশ্চয় মনে আছে, আমাদের সাধারণ সভায় তিনি পরিস্কার করে বলে গিয়েছিলেন যে, দল মত নির্বিশেষে সকলকে নিয়ে গণতন্ত্রের পক্ষে ঐক্য গড়ে তুলতে এবং এই ফ্যাসিবাদকে পরাজিত করতে ঐক্য নিয়ে লড়াই করতে হবে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে ফখরুল বলেন, আবেগ দিয়ে যুদ্ধ জয় করা যায়না। এখানে অনেকে অনেক কথা বলছেন। আমরা দেখেছি নেত্রী গ্রেফতার হওয়ার পরে যখন আমরা কর্মসূচি দিয়েছি। কতজন এসেছেন কতজন আসেননি। অনেকে কর্মসূচি থেকে আস্তে আস্তে চলে গেছেন। আমরা তো দেখেছি এই নির্বাচনের মধ্যে কারা বেরিয়ে এসে প্রতিবাদ করেছেন। সুতরাং শুধুমাত্র কথা বলে একটি বদ্ধ-আবদ্ধ ঘরের মধ্যে নিরাপদ জায়গায় এসব কথা বলে শত্রুকে পরাজিত করতে পারবো না। সেজন্য ছোট খাটো সমস্যাকে বড় করে না দেখে ঐক্য গড়ে তুলতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত