প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশী পাটজাত পণ্যে এন্টি-ডাম্পিং শুল্ক বাড়ানোর পরিকল্পনা ভারতের

মারুফুল আলম : সস্তায় আমদানি করা পণ্য থেকে দেশীয় শিল্প রক্ষার অজুহাতে ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বাংলাদেশ থেকে সস্তায় আমদানি করা পাটের তৈরি ব্যাগ ও অন্যান্য পণ্যের উপর এন্টি-ডাম্পিং শুল্ক বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে। সাউথ এশিয়ান মনিটর।

মন্ত্রণালয়ের তদন্ত শাখা ‘ডিজিটিআর’ দাবি করে, তারা তদন্ত করে দেখতে পেয়েছে, এন্টি-ডাম্পিং শুল্ক আরোপের পর বোনা কাপড়ের আমদানি বৃদ্ধি পেয়েছে। ডিজিটিআর জানায়, স্যাকিং ব্যাগের উপর ২০১৭ সালের ৫ জানুয়ারি যে এন্টি-ডাম্পিং শুল্ক আরোপ করা হয়, তা বাড়নোর সুপারিশ করেছে কর্তৃপক্ষ।

বর্তমানে পাটের সুতা, স্যাকিং ব্যাগ ও হেসেইন ফেব্রিকের (পাটের আঁশ থেকে তৈরি) উপর শুল্ক রয়েছে। টনপ্রতি ৬.৩ ডলার থেকে ৩৫১.৭ ডলার পর্যন্ত এই শুল্ক আরোপ করা হয়েছে। বাংলাদেশ থেকে পাটজাত পণ্য আমদানির বিরুদ্ধে প্রতারণা-বিরোধী তদন্ত চালানোর জন্য ভারতীয় জুট মিল এসোসিয়েশন থেকে আবেদন করা হয়েছিলো।
শুল্ক নিয়ে প্রতারণা করা হয় অভিযোগে এসোসিয়েশন বর্তমান এন্টি-ডাম্পিং শুল্ক বাড়ানোর অনুরোধ জানায়।

আমদানি করা পণ্য দেশীয় পণ্যের তুলনায় সস্তা কিনা তা দেখতে এন্টি-ডাম্পিং তদন্ত চালানো হয়। তখন পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে শুল্ক আরোপ করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত