প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সিরিয়ায় আইএসের ঘাঁটি সম্পূর্ণ নির্মুল করা সম্ভব হয়েছে বলে জানালো এসডিএফ

দুর্জয় চক্রবর্তী: সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটস অফ ইরাক অ্যান্ড লেভান্তে (আইএস) এর আর কোন ঘাঁটি নেই বলে জানিয়েছে সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্স (এসডিএফ)। এর মাধ্যমে ২০১৪ সালে সূচণা ঘটা জঙ্গি গোষ্ঠীটির তথাকথিত ‘খলিফার শাসনের’ অবসান ঘটল। এর আগে হোয়াইট শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে হোয়াইট হাউজ এ কথা জানালেও সিরিয়ার সম্পূর্ণ আইএস মুক্ত হওয়ার খবর এবারই প্রথম নিশ্চিত করলো এসডিএফ। আল জাজিরা, সিএনএন, রয়টার্স

এসডিএফের মিডিয়া অফিসের প্রধান মুস্তফা বালি টুইটারে জানায়, সিরিয়ায় আইএস একসময় তাদের নিয়ন্ত্রিত শতভাগ অঞ্চল হারিয়েছে। তিনি তার টুইটে এ বিশেষ দিনে আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নিহত হাজারো মানুষের আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করেন।

নিজেদের সবচেয়ে শক্তিশালী অবস্থানে থাকাকালীন আইএস পশ্চিম সিরিয়া থেকে ইরাকের রাজধানী বাগদাদ পর্যন্ত বিশাল এলাকা নিয়ন্ত্রণে নিয়েছিলো। তবে সিরিয়ায় আইএসের নিয়ন্ত্রণাধীন সর্বশেষ অঞ্চল ইউফ্রেতিস নদীর তীরবর্তী ছোট সিরিয় শহর বাঘৌজের দখল নিয়ে গত কয়েক সপ্তাহজুড়ে এসডিএফের সঙ্গে যুদ্ধ সংগঠিত হয়। যার পরিসমাপ্তি ঘটেছে এসডিএফের ঘোষণার মাধ্যমে।

এর আগে শুক্রবার হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র সারাহ স্যান্ডার্স, এয়ার ফোর্স ওয়ানে ফ্লোরিডায় ভ্রমণ করার সময় যুক্তরাষ্ট্রের ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী প্যাট্রিক শ্যানাহান আইএসের ঘাঁটি নির্মুল হওয়ার ব্যাপারে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অবহিত করেন। তখনো এসডিএফের পক্ষ থেকে ব্যাপারটি নিশ্চিত করা হয়নি।
তবে সিরিয়ায় নিজেদের সম্পূর্ণ অঞ্চল হারালেও ইরাকের উত্তর অংশে সম্পূর্ণ নতুন গেরিলা কার্যক্রম শুরু করেছে আইএস। এছাড়াও নাইজেরিয়া, লিবিয়া, মিশরের সিনাই উপত্যকা, আফগানিস্তান এবং ফিলিপাইনেও নিজেদের সংগঠিত করার চেষ্টা করছে আইএস। তাই আইএস এখনো হুমকি হিসেবে থেকে যাচ্ছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। যুক্তরাষ্ট্র মনে করছে আইএসের নেতা আবু বকর আল-বাগদাদী ইরাকে অবস্থান করছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত