প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ক্ষমা : ঘৃণার ভারমুক্তি!

মাসুদ রানা : ব্যক্তিগত পর্যায়ে আমি সাধারণত ক্ষমাশীল। কারণ ঘৃণা পোষণে আমি স্বস্তিবোধ করি না এবং ঘৃণার ভারবহন করে শক্তির অপচয়ে আমি বিশ্বাসীও নই। বুদ্ধিবৃত্তিক সূত্রে একসময়ের পরম বিশ্বস্ত এক মিত্র পরবর্তী সময়ে চরম শত্রুর মতো আচরণ করার পরও গতরাতে অপ্রত্যাশিতভাবে আমাকে ফোন করে ক্ষমা চাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমি তাকে ক্ষমা করে দিয়েছি। এতে আমি মহত্ত্বের অনুভূতি নয়, বরং একটা ভারমুক্তির স্বাদ পেয়েছি। ভুল ক্ষমা করাই শুধু মহত্ত্ব নয়, ভুলের জন্য ক্ষমা-চাওয়াও একটি মহত্ত্ব বটে।

কারণ এর জন্য আত্মসংশোধনের একটি মহৎ বোধের প্রয়োজন নয়। আমি বিশ্বাস করতে চাই, তার ক্ষমা চাওয়ার পশ্চাতে একটি মহৎ বোধ কাজ করেছে, যদিও তত্ত্বগতভাবে তার বিপরীতটা হওয়াও সম্ভব। আমি আশাবাদী ও ইতিবাচক মানুষ। তবে আমি মনে করি, গণপরিসরে কৃত অনুচিত আচরণের জন্য অনুতাপ ও ক্ষমা প্রার্থনা গণপরিসরেই করা উচিত। কারণ বুদ্ধিবৃত্তিক ও সামাজিক মিথষ্ক্রিয়ায় আমি গণজবাবদিহিতে বিশ্বাসী। জগতের সকলের মঙ্গল হোক। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত