প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতের গুরগাঁওয়ে ঘরে ঢুকে মুসলিম পরিবারের ওপর অত্যাচার! (ভিডিও)

রাশিদ রিয়াজ : ফের এক নৃশংস ও মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী থাকল গুরুগ্রাম। ফের একবার রক্তাক্ত হল মানব ধর্ম। গোটা ঘটনা ক্যামেরা বন্দি হল।
বৃহস্পতিবার গুরুগ্রামের ভোন্দসিতে আক্রান্ত হল এক মুসলিম পরিবারের সদস্যরা। প্রায় ৪০ জনের একটি দল এসে লোহার রড এবং হকি স্টিক দিয়ে বেধড়ক পেটায় এই পরিবারের সদস্যদের।

এই ঘটনার পর পুলিশ জানিয়েছে হোলির দিন ক্রিকেট খেলা নিয়ে তৈরি হওয়া বচসার জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে। অন্যদিকে আক্রান্ত পরিবারের দাবি হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের মদতেই দুষ্কৃতীরা প্ল্যান করে এই ঘটনা ঘটিয়েছে।

অভিযোগের ভিত্তিতে এখনও পর্যন্ত ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গোটা ঘটনার ভিডিয়ো ছড়িয়ে কেড়ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়, যেখানে দেখা যাচ্ছে কীভাবে ওই পরিবারের পুরুষ সদস্যদের লোহার রড এবং লাঠি দিয়ে মারা হচ্ছে। অন্যদিকে অসহায় মহিলারা বার বার অনুরোধ করছেন।

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায় প্রায় ৪০ মিনিট পর। আক্রান্তদের অভিযোগ বার বার ফোন করার পরেও তাৎক্ষণিক সাড়া মেলেনি পুলিশের থেকে। যতক্ষণে পুলিশ এসে পৌঁছায় ততক্ষণে দুষ্কৃতীরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকে এঘটনার নিন্দআ জানিয়েছেন। এধরনের এক মন্তব্যে বলা হয়েছে, একটা মনে রাখলে ভালো হয়। হিন্দু সন্ত্রাসবাদীরা যে খেলা শুরু করেছে, তার পরিণতি কিন্তু গোলটা করবে মূসলিম রাই। মুসলিমরা যখন কোনো কিছুতে চুপ থাকে, প্রতিরোধ, প্রতিবাদ করে না তখন এর ফলাফল যে কি হয় তার প্রমাণ সামান্য ইতিহাস পাঠক বলতেই জানে। অতএব হিন্দু সন্ত্রাসবাদীদের সাবধান করছি, এখনও সময় আছে! টাইমস অব ইন্ডিয়া

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত