প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিমানবন্দরে ৩০ দিনে ৬ জনের অস্ত্র নিয়ে প্রবেশ

মহসীন কবির : বিমান ছিনতাইচেষ্টায় জড়িত পলাশ আহমেদ নিহতের পর নড়েচড়ে বসে বিমানবন্দর প্রশাসন। পূর্ব ঘোষণা ছাড়া কেউ আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রবেশ করতে পারবে না। ০৯ মার্চ হযরত বিমানবন্দরে নিরাপত্তা সংক্রান্ত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ ঘোষণার পরও বিমানবন্দরে অস্ত্র নিয়ে প্রবেশের ঘটনা ঘটছে। গত ১ মাসে ৬বার বিমানবন্দরে অস্ত্র নিয়ে প্রবেশের ঘটনা ঘটলো।

গতকাল ২২ মার্চ পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই পিস্তল ও গুলি নিয়ে প্রবেশ করায় আওয়ামী লীগের এক নেতাকে আটক করেছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার সন্ধ্যায় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ ৩৫ রাউন্ড গুলিসহ তার কাছ থেকে পিস্তল জব্দ করে। পরে তাকে বিমানবন্দর থানায় সোপার্দ করা হয়েছে। আটক ব্যক্তি হলেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় সৈনিক লীগের নেতা সরদার মুজিব।

১৬ মার্চ শনিবার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এবার ঘোষণা ছাড়া অস্ত্র নিয়ে প্রবেশ করার অভিযোগে প্রবাসী পল্লী গ্রæপের চেয়ারম্যানের দেহরক্ষী নুরুল ইসলামকে আটক করেছে এভিয়েশন নিরাপত্তা সংস্থা এভসেক। বিকেল সাড়ে পাঁচটায় তাকে আটক করা হয়। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক উইং কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল ফারুক বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

এয়ারপোর্ট সিকিউরিটি ফোর্সের পরিচালক উইং কমান্ডার নুরে আলম সিদ্দিক জানান, বিকেলে নভোএয়ারের একটি ফ্লাইটে যশোর যাওয়ার জন্য বিমানবন্দরে আসেন এসএম নুরুল ইসলাম। তবে অস্ত্রের বিষয়ে ঘোষণা না দিয়েই স্ক্যানিং মেশিনে হ্যান্ডলাগেজ তুলে দেন তিনি। স্ক্যানিং মেশিনে তার ব্যাগে অস্ত্রের অস্তিত্ব ভেসে উঠলে তাকে নিরাপত্তা কর্মীরা ডেকে নেন। পরে তার পরিচয় জানতে চাইলে তিনি নিজেকে প্রবাসী পল্লী গ্রæপের চেয়ারম্যানের দেহরক্ষী বলে পরিচয় দেন।

এ সময় তাকে ব্যাগের অস্ত্রের বিষয়ে ঘোষণা দেননি কেন জানতে চাইলে তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। নিয়ম না মেনে ঘোষণা ছাড়া শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অস্ত্র নিয়ে প্রবেশ করায় নুরুল ইসলামকে বিমানবন্দর থানার পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে বলেও উইং কমান্ডার নুরে আলম জানান।

১১ মার্চ হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ঘোষণা ছাড়াই পিস্তল ও সাত রাউন্ড গুলি নিয়ে প্রবেশ করার অভিযোগে যশোরের চৌগাছা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও যশোরের চৌগাছা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী মাসুদ চৌধুরীকে আটক করে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করা হয়। পরে জামিন পান আওযয়ামী লীগের এই নেতা।
হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের এভিয়েশন সিকিউরিটির (এভসেক) পরিচালক নূর সিদ্দিকি সাংবাদিকদের জানান, অস্ত্র নিয়ে প্রবেশ করলেও মেহেদী হাসান কোনো ধরনের ঘোষণা দেননি। পরে বিমানবন্দরের নিরাপত্তাকর্মীরা তার অস্ত্র শনাক্ত করেন। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

গত ৮ মাচ পিসবতল নিয়ে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রবেশ করেন মানবাধিকার সংস্থার পরিচয়দানকারী মামুন আলী। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে এই ঘটনা ঘটে। মামুনের সঙ্গে থাকা পিস্তল ও সাত রাউন্ড গুলি নিয়ে বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে প্রথম তল্লাশি পার হওয়ার পর নিজের সঙ্গে অস্ত্র থাকার কথা স্বীকার করেন সেখানকার নিরাপত্তাকর্মীর কাছে।

এর আগে গত ৫ মার্চ ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম যাওয়ার পথে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তা তল্লাশি পার হওয়ার সময় অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে থাকা আগ্নেয়াস্ত্র স্ক্যানারে ধরা পড়েনি।
চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন পিস্তল নিয়ে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের স্ক্যানিং মেশিন পার হওয়ার ঘটনার ব্যাখ্যা দিয়েছেন। বলেছেন, বিমানবন্দরের প্রথম স্ক্যানিং মেশিনে আমার ল্যাপটপের ব্যাগটা দিয়ে আমি বডি স্ক্যানিং করে দ্বিতীয় স্ক্যানিং মেশিনের দিকে এগিয়ে যাই। তখন আমার হঠাৎ মনে হয়, ল্যাপটপের ব্যাগে আমার লাইসেন্সকৃত নাইন এমএম পিস্তল আর ১০ রাউন্ড গুলি আছে। সঙ্গে সঙ্গে দ্বিতীয় স্ক্যানিং মেশিনে দায়িত্বরত অফিসারদের বিষয়টি অবহিত করি।

গত ২৪ ফেব্রæয়ারি ঢাকা থেকে দুবাইগামী বাংলাদেশ বিমান উড্ডয়ন অবস্থায় ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে। ঘটনার দিনই তিনি নিহত হন। বলা হচ্ছে, ছিনতাইচেষ্টায় জড়িত পলাশ আহমেদ খেলনা পিস্তল ও বোমাসদৃশ বিস্ফোরক নিয়ে উড়োজাহাজে উঠেছিল। এসব ঘটনা গণমাধ্যমে আসার পর দেশের প্রধান বিমানবন্দরের নিরাপত্তা নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হয়। এরপর বাড়ানো হয় বিমানবন্দরের নিরাপত্তা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত