প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মুক্তিযুদ্ধের বই ছয়টি ভাষায় অনুবাদ করার তাগিদ

মো: তৌহিদ এলাহী : মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বর্হিবিশ্বে ছড়িয়ে দিতে এ সংক্রান্ত বই ছয়টি ভাষায় অনুবাদের উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন গবেষকরা। সকালে রাজধানীর বাংলা একাডেমীতে গণহত্যা, বধ্যভূমি ও গণকবর জরিপ শীর্ষক সেমিনারে এই আহ্বান জানান তারা। এ সময় সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেন, ‌‘জরিপে পাওয়া তথ্য থেকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সর্ম্পকে জানতে পারবে পরবর্তী প্রজন্ম।’ দীপ্ত টিভি

গণহত্যা নির্যাতন ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষণা কেন্দ্রের আয়োজনে সকালে বাংলা একাডেমির শামসুর রহমান সেমিনার কক্ষে শুরু হয় দিনব্যাপি সেমিনার। সংস্কৃতি বিষয়ক মণ্ত্রনালয়ের সহযোগিতায় দেশের বিভিন্ন জেলার গণহত্যা, বদ্ধভূমি ও গণকবরের চিত্র তুলে ধরা হয়। সেমিনারের শুরুতেই এ বছর দশটি জেলায় গণহত্যা এবং গণকবর চিহ্নিত করার কাজে নিয়োজিত গবেষকদের হাতে সনদ এবং এ সংক্রান্ত প্রকাশিত বই তুলে দেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

এ সময় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব আবু হেনা মোস্তফা কামাল বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সংরক্ষণে যে কোন প্রয়োজনে গবেষণা কেন্দ্রের পাশে থাকবে সরকার।’

গণহত্যা নির্যাতন আর্কাইভ ও জাদুঘর ট্রাস্টের সভাপতি অধ্যাপক মুনতাসির মামুন বলেন, ‘ মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে নানা তর্ক বিতর্কের অবসান করতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বহিবিশ্বে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ছড়িয়ে দিতে বইগুলো ছয়টি ভাষায় অনুবাদ করা প্রয়োজন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত