প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চীনে পাচার হচ্ছে মিয়ানমারের তরুণীরা

লিউনা হক : ২) ‘আমাদের একটি সন্তান দাও, তারপর তুমি চলে যাও’ শিরোনামে মানবাধিকার সংস্থার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মিয়ানমারের তরুণীদের অনেকেই চীনে পাঁচার হয়ে যাচ্ছে।-সিএনএন

৩) সেন মুন নামে উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় মিয়ানমারের একজন দরিদ্র শরণার্থীকে তার আত্মীয় চাকরি খুঁজতে চীন যাবার জন্যে পরামর্শ দেন।

৪) চীনে যাবার পথে ভ্রমণক্লান্ত মুনকে চেতনানাশক ওষুধ দেবার কারণে তিনি অজ্ঞান হয়ে যান। যখন জ্ঞান ফিরে পান তখন তিনি নিজেকে বন্দী অবস্থায় পান। তার আত্মীয় তাকে একটি চায়নিজ পরিবারের কাছে রেখে চলে যান।

৫) কয়েক মাস পর তার সেই আত্মীয় ফিরে এসে তাকে বলেন, একজন চায়নিজ লোককে বিয়ে করতে।

৬) টানা দুই মাস বন্দী জীবন এবং ধর্ষণের পর তাকে ঘরের বাইরে আনা হয় এবং অবশেষে মেয়েটির শ্বশুর লোকটিকে দেখিয়ে বলল, সেই হচ্ছে তার স্বামী এবং তার সঙ্গে মুনকে সংসার করতে হবে।

৭) এক পর্যায়ে মুন গর্ভবতী হয় এবং একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দেয়। এরপর তাকে মিয়ানমারে ফিরে যেতে বলা হয়।

৮) এভাবেই বেশিরভাগ তরুণীকে চলে যেতে হয় তাদের সন্তানদেরকে ফেলে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত