প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রেসক্রিপশন ছাড়া ওষুধ বিক্রি বন্ধ না হলে, অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ঠেকানো যাবে না বলেন, বিশেষজ্ঞরা

নুর নাহার : ২) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেলের আইসিইউতে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ২৩ বছরের রুবেল। তেমন জটিল কোনো রোগ নয়, সাধারণ নিউমোনিয়া। সংক্রমণ ঠেকাতে তার দেহে যে অ্যান্টিবায়োটিক প্রয়োগ করা হচ্ছে, কাজে আসছে না তার কোনোটিই। প্রেসক্রিপশন ছাড়া ওষুধ বিক্রি বন্ধ না হলে, অ্যান্টিবায়োটিকের অপব্যবহার ঠেকানো যাবে না বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। – চ্যানেল ২৪

৩) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডা. এম এ হাবিব বলেন, ‘এই রোগীটার ক্ষেত্রে আমরা ২০টি অ্যান্টিবায়োটিক কালচার করেছি। কিন্তু ১৯টি অ্যান্টিবায়োটিক তাঁর রেসিস্টেন্স। একটি অ্যান্টিবায়োটিক তাঁর শরীরে কাজ করছে। এতে তাঁর শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে।’

৪) ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. খান আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘আমাদের দেশে ঔষধ অত্যন্ত সহজলভ্য। ফলে কোন ব্যাক্তি ঔষধের দোকানে তাঁর সমস্যার কথা বললে দোকানদার তাকে অ্যান্টিবায়োটিক দিয়ে দিচ্ছে।’

আইসিডিডিআর,বি’র সিনিয়র বিজ্ঞানী ড. মুনিরুল আলম বলেন, ‘অ্যান্টিবায়োটিকের পলিসি খুব শক্তিশালী করতে হবে। তা না হলে আপনি যত শক্তিশালী হননা কেন, আপনিও আলাদা হবেন না।
বিশেষজ্ঞরা বলেন, অ্যান্টিবায়োটিকের নির্বিচার ব্যবহারের লাগাম টেনে না ধরলে মানুষ ফিরে যাবে অ্যান্টিবায়োটিক আবিস্কারের আগের সময়ে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত