প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভালো ব্যবসায়ীদেরকে প্রয়োজনীয় সব সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হবে, বললেন অর্থমন্ত্রী

কালাম আঝাদ : ব্যাংকিং সেক্টরে এখনও অনেক ফাইন্যান্সিয়াল টুলস ইন্ট্রুডিউস হয়নি। শর্ট টার্ম লোন দিয়ে লং টার্ম লোন দেওয়া এক ধরনের বোকামি। প্রয়োজনে বন্ড মার্কেটকে আরও বিকশিত করা হবে। দেশে ইনসলভেন্সি অ্যাক্ট নেই। আগামী সংসদেই তা উত্থাপনের চেষ্টা করব। আমাদের মধ্যে দেশপ্রেম ও ভাতৃত্ববোধ থাকতে হবে। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবসায়িক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

অর্থমন্ত্রী বলেন, যারা দেশের বাইরে চলে গেছে, তাদেরকে বলবো- দেশে ফিরে আসুন। দেশে এসে ব্যবসা-বাণিজ্য করুন। ভালো ব্যবসায়ীদেরকে প্রয়োজনীয় সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হবে।

আ হ ম মুস্তফা কামাল আরও বলেন, ‘এক সময় মানুষের প্রিয় এলাকা ছিল ব্যাংক। এখন মানুষ ব্যাংকে যেতে ভয় পায়। এ ভয় কাটাতে হবে। আমি অর্থমন্ত্রী হয়েছি ব্যাংকিং খাতকে গ্ল্যামার দেওয়ার জন্য।

আগামী ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে রাজস্বের আওতা বাড়বে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, অনেকেই আছেন, যারা কর দেওয়ার সামর্থ রাখেন, কিন্তু তাদেরকে এতদিন কর দিতে হয়নি। এখন থেকে করের আওতা বাড়ানো হবে।

আ হ ম মুস্তফা কামাল আরও বলেন, দেশের প্রতিটি পরিবারে অন্তত একজন করে লোককে কর্মক্ষম করে গড়ে তোলা হবে। তাদের মধ্যে হয়তো কাউকে সরকারি চাকরি, কাউকে বেসরকারি চাকরি, কাউকে কোনো ব্যবসা-বাণিজ্যের সঙ্গে সম্পৃক্ত করে দেওয়া হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, অগ্রণী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. জায়েদ বখ্ত ও অগ্রণী ব্যাংকে বাংলাদেশ ব্যাংকের পর্যবেক্ষক মো. সিরাজুল ইসলাম। এতে সভাপতিত্ব করেন অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামস্-উল-ইসলাম।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত