প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তিন উপজেলার ভোট স্থগিত, সমাজকল্যাণ মন্ত্রীর এপিএসের বিরুদ্ধে মামলা

মহসীন কবির : প্রভাব খাটানোর অভিযোগে আদিতমারী, পূর্বধলা ও জামালগঞ্জ উপজেলার ভোট বন্ধ করল নির্বাচন কমিশন (ইসি)। সেই সঙ্গে নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করার অভিযোগে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের  সহকারী ব্যক্তিগত কর্মকর্তা (এপিএস) মিজানুর রহমান মিজানের (৩৫) বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে নির্বাচন কমিশন।  একই সঙ্গে প্রভাবমুক্ত নির্বাচনের স্বার্থে আদিতমারী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার সকালে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা  জানান, সরকারি সুযোগ সুবিধা নিয়ে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণায় অংশগ্রহণ করা নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘনের সামিল। সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের এপিএস হয়ে আদিতমারী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত রফিকুল আলমের নৌকা প্রতীকে ভোট চান মিজানুর রহমান মিজান।

এছাড়াও নৌকার পক্ষে সমর্থন দিতে সাধারণ ভোটার থেকে নেতাকর্মীদের নানাভাবে হুমকি ধমকি দিয়ে আসছিলেন বলে দাবি করে গত ৬ মার্চ এপিএস মিজানুরের বিরুদ্ধে সিইসি বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন এ উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ফারুক ইমরুল কায়েস (মোটরসাইকেল)।

শুক্রবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কমিশনের সিদ্ধান্তের বিষয়ে ইসির সহকারি পরিচালক (জনসংযোগ) মো. আশাদুল হক জানান, কমিশন শুক্রবার লালমনিরহাটের আদিতমারী, নেত্রকোণার পূর্বধলা ও সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার ভোট স্থগিত করেছে। ভোটে স্থানীয় সাংসদের প্রভাব খাটানোর অভিযোগও উঠেছে ইতোমধ্যে। স্থানীয় ৯ সাংসদকে এলাকা ছাড়ারও নির্দেশনা দিয়েছিল।আচরণবিধি লঙ্ঘন ও প্রভাব খাটানোর অভিযোগের পর অনন্যোপায় হয়ে এ তিন উপজেলার ভোট স্থগিত করা হয়েছে বলে জানান ইসি কর্মকর্তারা।

এর আগে ইসির যুগ্মসচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান জানান, প্রভাবমুক্ত নির্বাচন করতে উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টিতে ব্যর্থ হওয়ায় লালমনিরহাটের ওসিকে প্রত্যাহার করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে প্রভাব খাটানোর অভিযোগে সমাজকল্যাণ মন্ত্রীর এপিএসের বিরুদ্ধে মামলার করার সিদ্ধান্ত দিয়েছে ইসি। প্রথম পর্যায়ে চার বিভাগের ১২ জেলার ৮৩ উপজেলায় ভোট হওয়ার কথা ছিল। আজকের সভায় তিন উপজেলা বাদ পড়ায় ৮০ উপজেলায় ভোট হবে।

এগুলো হলো রংপুর বিভাগের পঞ্চগড় জেলার সদর, আটোয়ারী, বোদা, দেবীগঞ্জ ও তেঁতুলিয়া উপজেলা; কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী, ফুলবাড়ী, উলিপুর, নাগেশ্বরী, রাজারহাট, রাজিবপুর, কুড়িগ্রাম সদর, চিলমারী ও রৌমারী উপজেলা; নীলফামারীর ডোমার, ডিমলা, নীলফামারী সদর, জলঢাকা, সৈয়দপুর ও কিশোরগঞ্জ উপজেলা এবং লালমনিরহাটের পাটগ্রাম, হাতীবান্ধা, লালমনিরহাট সদর ও কালীগঞ্জ উপজেলা।

ময়মনসিংহ বিভাগের জামালপুর জেলার সদর, সরিষাবাড়ী, ইসলামপুর, বকশীগঞ্জ ও দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা এবং নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা, দূর্গাপুর, খালিয়াজুরী, মোহনগঞ্জ, কেন্দুয়া, কলমাকান্দা, মদন ও সদর উপজেলা।

সিলেট বিভাগের সুনামগঞ্জ জেলার সদর, ছাতক, দোয়ারাবাজার, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ, দিরাই, শাল্লা, ধর্মপাশা, বিশ্বম্ভরপুর ও তাহিরপুর উপজেলা এবং হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল, মাধবপুর, চুনারুঘাট, লাখাই, সদর, নবীগঞ্জ, আজমিরীগঞ্জ ও বানিয়াচং উপজেলা।

রাজশাহী বিভাগের সিরাজগঞ্জ জেলার সদর, বেলকুচি, চৌহালী, কাজীপুর, রায়গঞ্জ, শাহজাদপুর, তাড়াশ ও উল্লাপাড়া উপজেলা; জয়পুরহাটের সদর, পাঁচবিবি, আক্কেলপুর, কালাই ও ক্ষেতলাল উপজেলা; নাটোরের বাগাতিপাড়া, গুরুদাসপুর, বড়াইগ্রাম, লালপুর ও সিংড়া; রাজশাহী জেলার তানোর, গোদাগাড়ী, মোহনপুর, বাগমারা, পুঠিয়া, দূর্গাপুর, চারঘাট ও বাঘা উপজেলা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত