প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্প হারলে ক্ষমতার শান্তিপূর্ণ হস্তান্তর হবে না, হাউজ শুনানিতে কোহেন

আব্দুর রাজ্জাক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিষয়ে বহুল প্রতীক্ষিত স্বাক্ষ্য দিয়েছেন তার সাবেক ব্যক্তিগত আইনজীবী মাইকেল কোহেন। মার্কিন হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভ প্যানেলে শুনানিতে অংশ নিয়ে কোহেন আশঙ্কা করেছেন যে, আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হারলে ট্রাম্প শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতার হস্তান্তর নাও করতে পারেন। ইয়ন, সিএনএন

কোহেন হাউজ শুনানিতে গিয়ে ট্রাম্পের মিথ্যাচার ও বর্ণবিদ্বেষের ব্যাপারে স্বাক্ষ্য দিতে পারেন বলে মার্কিন গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছিলো। গণমাধ্যমের প্রতিবেদনেরই যেনো প্রতিফলন হয়েছে বুধবারের শুনানিতে। কোহেন স্বাক্ষ্য দিতে গিয়ে ট্রাম্পকে একগাদা অভিযোগে জর্জড়িত করেছেন। তার অন্যতম ছিলো, তিনি ২০২০ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হারলে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতার হস্তান্তর না করার আশঙ্কা।

শুনানির গোড়ার দিকেই কোহেন বলেন, ট্রাম্প একজন প্রতারক। তিনি বিভিন্ন কৌশল খাটিয়ে মোটা অংকের কর ফাঁকি দিয়েছেন। তিনি মার্কিন পর্ণস্টার স্টর্মি ডেনিয়েলসকে সাবেক প্রেমের কথা ছাপিয়ে রাখতেও অর্থ প্রদান অনুমোদন করেছিলেন। এবং ৩৫ হাজার ডলার দিয়ে মুখবন্ধ রাখতে একটি ব্যক্তিগত চেক বইয়েও ট্রাম্প সই করেছিলেন বলে কোহেন জানান।

ট্রাম্প একজন চরম বর্ণবিদ্বেষী মানুষ। তিনি কৃষ্ণাঙ্গদের সর্বাদাই অবজ্ঞা করেন। ট্রাম্প নির্বাচনের সময় বলতেন যে, ‘‘কৃষ্ণাঙ্গরা আমাকে ভোট দেবে না কারণ তারা ‘স্টুপিড’।’’

গোপন তথ্য ফাঁসকারী ওয়েবসাইট উইকিলিক্স মার্কিন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনের যে ইমেইলগুলো প্রকাশ করে দিয়েছিলো তাও আগে থেকেই জানতেন ট্রাম্প।

তবে ট্রাম্পের পক্ষে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের বিষয়ে সরাসরি কোন প্রমাণ তার কাছে নেই বলে জানিয়েছেন ইতোমধ্যেই কংগ্রেসে মিথ্যা স্বাক্ষ্য দেয়ার জন্য ৩ বছরের সাজা পাওয়া ৫২ বছর বয়সী কোহেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত