প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এমপি ফারুককে এলাকা ছাড়ার নির্দেশ

ডেস্ক রিপোর্ট :আসন্ন উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের সঙ্গে ‘গোপন বৈঠক’ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরীর বিরুদ্ধে।

বুধবার দুপুরে রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা জুলকার নায়নের কাছে এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

তানোর উপজেলা নির্বাচনে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি মনোনীত হাতুড়ি প্রতীকের প্রার্থী শরিফুল ইসলামের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট ও জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক তোতা এ অভিযোগ দেন। সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে তানোরের প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের তালিকা সম্পূর্ণভাবে পরিবর্তনের দাবিও জানিয়েছেন তিনি।

আশরাফুল হক তোতা বলেন, তিন দিন আগে এমপি ওমর ফারুক চৌধুরী তানোরের মুণ্ডুমালা কামিল মাদরাসায় প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের সঙ্গে গোপনে বৈঠক করেন। সেখানে তিনি প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আপনারা যেভাবে কাজ করেছেন, সেভাবেই কাজ করবেন, পুরস্কার আছে, পুরস্কার বিগত দিনে পেয়েছেন, এবারও পাবেন।

এভাবে প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের প্রভাবিত করা হচ্ছে উল্লেখ করে তোতা বলেন, এমপি ফারুক চৌধুরী নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে প্রকাশ্যে প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন। তাই তানোরে ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারবেন কি-না তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। এখন নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর সমর্থকরা হাতুড়ি প্রতীকের সমর্থকদের আক্রমণ করছেন। কিন্তু তানোর থানা পুলিশ নিষ্ক্রিয় ভূমিকা পালন করছেন। এতে আমরা হতাশ হচ্ছি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী কোনো কথা বলতে চাননি। তবে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা জুলকার নায়ন। তিনি বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর বিষয়টি সংশ্লিষ্ট সবাইকে জানানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।

এরই মধ্যে নির্বাচনী বিধিমালা ভেঙে উপজেলার ভোটের প্রচারে অংশ নেয়ায় রাজশাহী-১ আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরীকে নির্বাচনী এলাকা ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

বুধবার ইসির যুগ্মসচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান জানান, এ সংক্রান্ত চিঠি ও নির্দেশনা তারা সংসদ সদস্যের নামে পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, রাজশাহী-১ আসনের আওতাধীন গোদাগাড়ী উপজেলা পরিষদের একজন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীকে হুমকি দেয়ার অভিযোগ নিয়ে সম্প্রতি গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে।

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, এ অবস্থায় যেহেতু আপনি বিধিবহির্ভূতভাবে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করছেন, তাই আপনাকে রাজশাহী-১ নির্বাচনী এলাকা (তানোর-গোদাগাড়ী) ত্যাগ করার নির্দেশ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি।

প্রসঙ্গত, আগামী ১০ মার্চ থেকে উপজেলা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হচ্ছে। প্রথম ধাপের ভোটের জন্য প্রার্থীরা এখন প্রচারে রয়েছেন।সূত্র: জাগো নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত