প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিবিরের বাচ্চা সাপগুলোকে ডাকসু নির্বাচনে কোনোভাবেই মেনে নেয়া যাচ্ছে না

লীনা পারভীন : ডাকসু মানেই বাংলাদেশ। এই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই এই দেশটার জন্ম। কিছু কিছু জায়গায় স্বাধীনতাবিরোধী শক্তির পদচারণা থাকলেও আমাদের প্রাণের ক্যাম্পাসে সেই সাহস করার কথাও ভাবতে পারেনি ইসলামী ছাত্রশিবিরের সাপের বাচ্চারা। একবার লুকিয়ে চুরিয়ে মিছিল করতে চেয়েছিলো অন্য নামে, কিন্তু টের পেয়ে ধাওয়া দিয়েছিলাম আমরা। বরাবরই তারা খোলস পাল্টেই গর্ত থেকে বের হতে চায়, কিন্তু এর আগে পারেনি। আবারও বের হতে চাইছে তবে স্বনামে নয় আবারও বেনামে। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ডাকসুতে নির্বাচনের খায়েশ জন্মেছে তাদের। ছাত্রলীগ, ছাত্রদল, বামদলগুলোসহ আছে কিছু বিদ্রোহী প্রার্থীও। সব ঠিক আছে, কিন্তু শিবিরের এই বাচ্চা সাপগুলোকে কোনোভাবেই মেনে নেয়া যাচ্ছে না। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ হয়তো কিছুই করতে পারবে না, তবে করার আছে আমার, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের এবং অন্যান্য দলের প্রার্থীদের। ’৭৫-এ বঙ্গবন্ধু ঘাতকদের নাম নিয়ে এ প্রজন্মের নূর, রাশেদ আর ফারুক মাঠে নেমেছে এই বাংলাদেশের নেতা সাজার স্বপ্ন নিয়ে।
যারা বাংলাদেশকেই মানে না, এই পতাকার রঙকে বুকে ধারণ করে না এবং যারা খুনিদের রক্তকে ধারণ করে চলে তাদের কোনো স্থান নেই এই বাংলার বুকে আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তো নয়ই। তাদের পূর্বসূরিরা ঠাঁই করতে পারেনি আর এরা তো কোন ছাই। আসুন এদেরকে বর্জনের ডাক দিই একযোগে। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত