প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জামায়াতে ইসলামী আজ সবদিক দিয়েই অস্তিত্বের সংকটে : শেখর দত্ত

নাঈমা জাবীন : রাজনীতিক ও কলাম লেখক শেখর দত্ত বলেছেন, ভাষার আন্দোলনের মাস ফেব্রুয়ারি চলছে, তাই বলতেই হয়, বাঙালির ইতিহাসই হচ্ছে আঘাত এলে প্রত্যাঘাত করতে জানে জাতি। সেই প্রত্যাঘাত পেয়েই জামায়াত আজ সবদিক দিয়েই অস্তিত্বের সংকটে। ‘সৎ লোকের দল’ বলে পরিচিতি নিয়ে যে দলটির নীলনকশা ছিলো ছলে-বলে-কৌশলে এই মানচিত্রকে সম্পূর্ণ করায়ত্ব করে পাকিস্তানের চেয়েও বেশি পরিমাণে ‘মওদূদী মার্কা’ একটি দেশ গড়া, সেই দল আজ রাজনৈতিক ও সাংগঠনিকভাবে ছত্রখান, উদার ও কট্টর হিসেবে দ্বিধাবিভক্ত, যা কয়েকদিন আগেও এই আদর্শকেন্দ্রিক দলটিকে নিয়ে ভাবা যেতো না। এদিকে বেআইনি হওয়ার অপেক্ষায় আছে দলটি। অন্য নামে দল করার পাঁয়তারাও করছে। এটাও দলটির পক্ষে সম্ভব মনে করার কোনো কারণ নেই। কারণ বিষফোঁড়া আর টিকিয়ে রাখার পক্ষে বর্তমান ক্ষমতাসীন জাতীয় রাজনীতির মূলধারা থাকবে বলে মনে করার কোনো কারণ নেই। উল্লেখ্য, নবজাত বাংলাদেশে জামায়াত যখন বেআইনি ছিলো তখন ভোল পাল্টিয়ে উগ্রবাম ‘রাতের বাহিনী’তে যোগ দিয়েছিলো দলটির ক্যাডাররা, রাজাকার-আলবদররা। সূত্র : ভোরের কাগজ
তিনি আরো বলেন, এটা আজ প্রমাণিত সত্য যে, এই দলটি সেই ছাতার নিচে আশ্রয় পেয়েছিলো বলেই ‘রাতের বাহিনী’কে অর্থ ও অস্ত্র দিয়ে সাহায্য করেছিলো মুরব্বি পাকিস্তান। সেই অভিজ্ঞতার কথা স্মরণে রেখে ‘সূচ্যগ্র মেদিনী’ও যে দলটিকে দেবে না বর্তমান ক্ষমতাসীন মুক্তিযুদ্ধের অভীষ্ট লক্ষ্যাভিমুখী সরকার তা অবস্থাদৃষ্টে সুস্পষ্ট। আরো একটি বিষয় লক্ষণীয় যে, বিশ্বব্যাপী যখন ধর্মীয় রাজনীতির রমরমা অবস্থা, দেশে দেশে যখন ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক দলের উত্থান হচ্ছে, তখন জামায়াত বাংলাদেশে পড়েছে চরমতমভাবে বিপাকে। এতেই প্রমাণ হয়, জামায়াত বাংলাদেশে অচল মাল। মওদূদীর মতবাদপুষ্ট চরমপন্থা দলটি গণহত্যাসহ এতোটা অপকর্মের সঙ্গে জড়িত থেকে এবারে আর পার পেয়ে যাবে মনে করার কোনো কারণ নেই। দলটির সদ্য পদত্যাগকারী নেতা উচ্চ শিক্ষিত ও আইনের লোক হয়েও যিনি গণহত্যাকারী দলের সঙ্গে দীর্ঘদিন নেতৃত্ব পদে ছিলেন এবং আইন এড়াতে যিনি আছেন পালিয়ে বিদেশে, তিনি সঠিকভাবেই মূল্যায়ন করেছেন যে, ‘একটি দেশের স্বাধীনতার বিরোধিতা করে কেউ সে দেশের নেতৃত্ব দিয়েছেন- এ রকম ইতিহাস আমি খুঁজে পাইনি।’ এ ক্ষেত্রেও তিনি মানবতাবিরোধী গণহত্যায় অংশ নেয়ার কথাটি চেপে গেছেন। তাই সর্বোতভাবেই জনগণ মনে করে এদের দেশের আইনের আওতায় আনার সময় এখনই। জামায়াত নামের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভূত বিএনপির ঘাড় থেকে না নামলে এই বিষফোঁড়া থেকে জাতি কখনো রেহাই পাবে না এবং দেশ জন্মলগ্নের মর্মবাণী থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার বিপদও থাকবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত