প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভোটার তালিকায় নাম নেই, অথচ ডাকসুর প্রার্থী!

নিউজ ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের ভোটার তালিকায় নাম নেই, অথচ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য মনোনয়ন সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। নিয়ম অনুসারে ভোটার তালিকায় নাম না থাকলে মনোনয়ন নেওয়া যাবে না। সারা বাংলা

সূত্র জানিয়েছে, শামসুন নাহার হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি নিপু ইসলাম তন্বী এই কাজ করেছেন। তিনি ছাত্রলীগের প্যানেল থেকে ডাকসুর সদস্য পদে নির্বাচন করার জন্য মনোনীত হয়েছেন। এই কারণেই তিনি শামসুন নাহার হল থেকে ডাকসুর সদস্য পদে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন।

সূত্র জানায়, নিপু ইসলাম তন্বী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১১-১২ সেশনের ছাত্রী। তার ছাত্রত্ব ছিল না। কিন্তু আসন্ন ডাকসু নির্বাচনে অংশ নেওয়ার জন্য তড়িঘড়ি করে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইনস্যুরেন্স বিভাগের অধীন সান্ধ্যকালীন কোর্স ‘মাস্টার্স অব ট্যাক্স ম্যানেজমেন্ট’ এ ভর্তি হন। কিন্তু হল কর্তৃক প্রকাশকৃত ভোটার তালিকার এখনও তার নাম নেই। তারপরও তিনি শামসুন নাহার হল থেকে ডাকসুর সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য মনোনয়নপত্র নিয়ে জমা দিয়েছেন।

নিয়ম অনুযায়ী ভোটার তালিকায় নাম না থাকলে কেউ মনোনয়ন নিতে পারবে না। অথচ অভিযুক্ত হল থেকে মনোনয়ন নিয়ে ডাকসুর সদস্য পদে মনোনয়ন জমাও দিয়েছেন।

ভোটার তালিকায় নাম না থাকা সত্ত্বেও কিভাবে মনোনয়ন নিলো জানতে চাইলে শামসুন নাহার হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সুপ্রিয়া সাহা বলেন, ‘আমি এই নিয়ম সম্পর্কে অবগত নয়।’ তিনি উল্টো প্রশ্ন করে বলেন, ‘এই নিয়ম আপনি কোথায় পেয়েছেন?

তবে এ ব্যাপারে চিফ রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘যাদের ভোটার তালিকায় নাম নেই সে নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন না। মনোনয়ন নিতেও পারবেন না। যদি পরবর্তীতে সম্পূরক তালিকায় নাম থাকে, তবে তিনি শুধু ভোট দিতে পারবেন। তন্বীর বিষয়টি অবহিত করলে তিনি বলেন, ‘মনোনয়ন নেওয়ার কোন সুযোগ নেই। যদি কেউ নেয় তবে সেটা গৃহীত হবে না।’

তবে ডাকসুর তফসিল অনুযায়ী, গত ২০ ফেব্রুয়ারি কর্তৃপক্ষ চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করেছে। আর গতকাল (২৫ ফেব্রুয়ারি) ছিল মনোনয়ন গ্রহণের শেষ দিন। কর্তৃপক্ষ আজ (২৬ ফেব্রুয়ারি) মনোনয়ন গ্রহণকারীদের থেকে মনোনয়ন সংগ্রহও করেছেন। আগামীকাল (২৭ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১২টায় হলের নোটিশ বোর্ডে ও ওয়েবসাইটে ডাকসুর প্রার্থীদের প্রাথমিক তালিকা প্রকাশ করা হবে। কিন্তু এখন পর্যন্ত ওয়েবসাইটে নিপু ইসলাম তন্বীর নাম ভোটার তালিকায় আসেনি।

ভোটার তালিকায় নাম না আসা সত্ত্বেও কিভাবে মনোনয়ন নিলেন এমন প্রশ্নের জবাবে নিপু ইসলাম তন্বী সাংবাদিকদের জানান, তিনি একটি বিভাগে ভর্তি হয়েছেন। হল কর্তৃপক্ষের সময়মত কাজ না করার কারণে তার ভোটার নম্বর এখনও ওয়েবসাইটে আসেনি। তবে সম্পূরক ভোটার তালিকায় তার নাম আসবে বলে তিনি জানান। অথচ সম্পূরক ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে ৫ মার্চ। আর চূড়ান্ত প্রার্থীদের তালিকা ৩ মার্চ বিকেল চারটায় হলের নোটিশ বোর্ড ও ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

বিষয়টি অবহিত করলে ডাকসুর প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক ড. মাহফুজুর রহমান বলেন, ভোটার তালিকায় নাম না থাকলে কারও প্রার্থিতা গ্রহণযোগ্য হবে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ