প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফুটবলের পাশাপাশি ব্যবসাতেও সফল যে পাঁচ ফুটবলার

রাকিব উদ্দীন : বিশ্বে জনপ্রিয় খেলার মধ্যে ফুটবল অন্যতম। অন্যসব খেলার মধ্যে উপার্জনের ক্ষেত্রেও ফুটবল খুবই জনপ্রিয়। পারফর্মেন্সের উপর ভিত্তি করেই মূলত উপার্জন কম-বেশি হয়ে থাকে। কিন্তু প্রাকৃতিকভাবেই একটি সীমিত সময়ের পর আগের মতো দুর্দান্ত পারফর্মেন্স থাকে না। আর সেজন্যই অনেকেই ফুটবলের পাশাপাশি ব্যবসার দিকে মনোনিবেশ করে থাকে।

বিশ্ব বানিজ্যে অংশগ্রহণ করা ফুটবল প্লেয়ারদের জন্য নতুন কোন বিষয় নয়। এদের মধ্যে অনেকেই স্বভাবগতভাবে, প্রাকৃতিকভাবে ব্যবসায় বিনিয়োগ করে থাকে। আবার কেউ বা পারিবারিক সূত্রেও ব্যবসায়ের অধিকারী হয়। এছাড়াও সাধারন ব্যাবসায়িদের মতো তারাও উদ্যোক্তা হতে পছন্দ করে। একনজরে দেখে নেয়া যাক ফুটবলের পাশাপাশি ব্যবসায়ে সফল সাতজন জনপ্রিয় প্লেয়ার।

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো :
রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে দীর্ঘ ৯ বছর সফলতা দেখিয়ে জুভেন্টাসে যোগদান করা এ ফুটবল তারকা নিজেই একটি ব্যান্ড। খেলার পাশাপাশি উদ্যোক্তায় মনোনিবেশ করা এ প্লেয়ার ২০০৬ সালে পর্তুগালের মাদেরিয়াতা ‘সিআর সেভেন’ নামক বুটিক শপ প্রতিষ্ঠা করেন। এ ব্যবসায়ে সফলতার ২ বছর পরেই লিসবোনে আরেকটি শাখা প্রতিষ্ঠা করেন। যেখানে শার্ট, জুতার পাশাপাশি আন্ডারওয়্যার বিক্রি করা হয়। এছাড়াও বর্তমানে এ জুভি স্ট্রাইকার হোটেল ব্যাবসায় সফলতা দেখিয়ে যাচ্ছেন।

নেইমার :
বার্সেলোনা থেকে বড় অঙ্গের চুক্তিতে পিএসজিতে যোগদান করা এ স্ট্রাইকার শুধু মাঠেই উপার্জন করেন না। ফুটবলের পাশাপাশি নাইক, গিলেট এবং প্যানাসনিকের মতো বিখ্যাত কোম্পানিগুলোর বিজ্ঞাপনের স্পনসরশিপে অংশগ্রহণ করে লোভনীয় অঙ্কের অর্থ অর্জন করে থাকেন। এছাড়াও নেইমার তার নিজস্ব লোগো তৈরী করে তার সুনাম ব্যবহার করে উপার্জন করে থাকেন।

জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ :
শুধু খেলার মাঠেই নয়, ব্যবায়িক অঙ্গনেও নিজের জনপ্রিয়তা ছড়িয়ে দিয়েছেন ইব্রাহিমোভিক। নিজেই একটি ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন, যার নামকরণ করেছেন ‘এ টু জেড’। যেখানে জেড শব্দের অর্থ জøাটান অর্থাৎ তার নাম বুঝায়। এছাড়া ইনজুরির কারনে এবছর দল থেকে চিটকে পড়ার পর বসে থাকেননি তিনি। ‘জøাটান লিজেন্টস’ নামক মোবাইল গেমস তৈরী করে নিজের সাফল্য বিশ্বকে দেখাচ্ছেন ইব্রাহিমোভিক।

আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা :
১৯৯৯ সালে স্পেনের বিনিয়ার্ডসে একটি লোকাল কোম্পানি হিসেবে ইনিয়েস্তার পিতা জোসে অ্যান্তনিও ওয়াইন বিক্রির ব্যবসা শুরু করেন। পরবর্তীতে উত্তরাধিকার সূত্রে ব্যাবসাটির দায়িত্ব ইনিয়েস্তার কাছে হস্তান্তরিত হয়ে নামকরন করা হয় ‘ভোদকা ইনিয়েস্তা’। প্রথমাবস্থায় ব্যবসাটি তেমন সাড়া জাগাতে না পারলেও পরবর্তীতে ফুটবল অঙ্গনে বার্সেলোনার এ মিডফিল্ডারের জনপ্রিয়তার খাতিরে ব্যবসায়ে সফলতা আসে।

জেরার্ড পিকে :
বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে অসংখ্যবার ইউরোপিয়ান কাপ জেতা এ প্লেয়ার বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন হলিউডের জনপ্রিয় গায়িকা সাকিরা’কে। ৩০ বছর বয়সি কাতালান এ তারকা ফুটবলের পাশাপাশি ‘স্নুকার’ খেলায় কোন অংশে কম না। স্পেনের টপ ১৫০ জনের মধ্যে পিকে একজন যিনি প্রতি টুনার্মেন্টে ৯৪০০০ ইউরো উপার্জন করেন।

এছাড়াও কাতালান এ ডিফেন্ডারের ‘কেরাড গেমস’ নামক কোম্পানিতে ২৭% শেয়ার রয়েছে। পাশাপাশি নিজস্ব খাঁটি মাংসের ব্যবসাতেও সফল পিকে।  (৯০মিন.কম থেকে অনূদিত)

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত